Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- John - 005 (The Baptist prepares the way of Christ)
This page in: -- Arabic -- Armenian -- BENGALI -- Burmese -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- Hausa? -- Hindi -- Indonesian -- Kiswahili -- Kyrgyz -- Malayalam -- Peul -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish -- Tamil -- Telugu -- Turkish -- Urdu -- Uyghur -- Uzbek -- Vietnamese -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

যোহন - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলছে
যোহন বর্ণীত মসিহের নাজাতের বারতার সুসমাচার ওপর অধ্যয়ন
প্রথম অংশ - বেহেশতি নূর ঝলমল করছে (যোহন ১:১ - ৪:৫৪)
ক - খোদার বাক্য ঈসা মসিহের মাধ্যমে জন্ম নিলেন (যোহন ১:১-১৮)

২. বাপ্তিস্মদাতা, ঈসা মসিহের পথ প্রস্তুত করেন (যোহন ১:৬-১৩)


যোহন ১:৬-৮
৬ খোদা যোহন নামে একজন লোককে পাঠিয়েছিলেন৷ তিনি আলোর বিষয়ে সাক্ষী হিসাবে সাক্ষ্য দিতে এসেছিলেন যেন সকলে তার সাক্ষ্য শুনে বিশ্বাস করতে পারে৷ যোহন নিজে সেই আলো ছিলেন না কিন্তু সেই আলোর বিষয়ে সাক্ষ্য দিতে এসেছিলেন৷

খোদা বাপ্তিস্মদাতা যোহনকে অন্ধকারাময় জগতে পাঠিয়েছিলেন যাতে করে মানুষ ঐশী আলোর জ্যোতির কাছে আসতে পারে৷ প্রত্যেকেই জানে অন্ধাকারের মধ্যে অনেক পাপকার্য সংগঠিত হয়৷ কিন্তু সেই খোদার নিকট তার অপরাধ স্বীকার করে এবং ভগ্ন হৃদয়ে অনুতাপ করে সেই আলোর কাছে আসতে পারে৷ তোমার বিষয় কী? তুমি কি আলোর কাছে এসেছ নাকি এখনো অন্ধকারে নিজেকে লুকাচ্ছ?

বাপ্তিস্মদাতা, মানুষের কাছে তাদের হৃদয়ের অবস্থা বর্ণনা করেছিলেন৷ খোদার আজ্ঞা অনুসারে তারা সবাই ছিল মন্দ৷ তাদের প্রয়োজন অনুতাপ করবার এবং মৌলিক পরিবর্তনের, যাতে তারা প্রভুর বিচারের দিনে বিনষ্ট না হয়৷ বাপ্তিস্মদাতার আহ্বান অনেক মানুষকে নাড়া দেয় এবং মানুষ মরুভূমিতে তার কাছে অনুতাপ চিত্তে পাপ স্বীকারের জন্য দৌড়ে যায়৷ তারা প্রকাশ্যে তাদের পাপ স্বীকার করে এবং জর্দান নদীতে বাপ্তিস্ম নিতে চায়, পাপ মোচনের প্রতীক হিসেবে তাদের স্বার্থপরতা বিসর্জন দেওয়ার জন্য এবং একটি নতুন জীবন পাবার জন্য ওই নদীর স্রোতধারার মধ্য দিয়ে৷

বাপ্তিস্মদাতা যোহনকে খোদা মনোনীত করেছিলেন৷ তিনি তাকে আলোকিত করেছিলেন এবং ক্ষমতা দিয়র্েিছলেন যাতে তিনি সমস্ত মানুষদের তাদের চেতনায় ফিরিয়ে আনতে পারেন, তাদের চিন্তাধারাকে পরিবর্তন করতে পারেন এবং তাদেরকে মসিহের আগমনের জন্য প্রস্তুত করতে পারেন৷ পুরাতন নিয়মের লোকেরা, যিনি প্রভুর নামে আসবেন, তার ব্যাপারে অনেক কিছু জানতো৷ নবী যিশাইয় তার সম্পর্কে এইভাবে বলেছিলেন 'যে সমস্ত লোকেরা অন্ধকারে চলতো তারা এক বিশাল আলো দেখেছে, যারা মৃতু্যর ছায়াঘেরা দেশে বাস করতো ও তাদের উপরেই এই নূর ঝলমল করছে৷' (যিশাইয় ৯ : ২)৷ তিনি প্রভূর নামে আরো বলেছিলেন 'ওঠ এবং নূরে ঝলমল কর, কারণ আলো এসেছে! এবং প্রভূর মহিমা তোমাদের উপর অর্পিত হয়েছে' যিশাইয় (৬০-১)৷ বাপ্তিস্মদাতা শিখিয়েছিলেন যে, অন্ধকারের মধ্যে এই নূর পুরাতন নিয়মের লোকদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না, কিন্তু সবার জন্য খোলা থাকবে৷ তাই বাপ্তিস্মদাতার এই বাণী গোটা দুনিয়াকে পরিবেষ্টন করেছিল, যাতে করে এশিয়া মাইনর এবং অন্যান্য ভূমধ্যসাগরীয় অঞ্চলের লোকেরা তার মৃতু্যর পর বছরের পর বছর তাকে অনুসরণ করতে পারে৷

হাজার হাজার মানুষ তাকে অনুসরণ করেছিল তার এই সাক্ষ্য দেওয়া সত্ত্বেও যে তিনি সেই নূর নন কিন্তু তার আগমনের আগে ঘোষণাকারী মাত্র৷ তিনি মানুষের কাছে নিজের সম্পর্কে কোন আভাস দেননি, কিন্তু তাদেরকে মসিহের দিকে পথনির্দেশ করেছিলেন৷ এটা হলো খোদাপ্রেরিত সকল সত্যবার্তা বাহকদের জন্য নিদর্শন, যাতে করে তারা তাদের অনুসারীগণকে নিজেদের দিকে বেঁধে না রাখে, কিন্তু একমাত্র মসিহের কারণেই বেঁধে রাখে৷

যোহনের কার্যের উদ্দেশ্য, অনুতাপ বা বাপ্তিস্ম দেওয়া নয়, কিন্তু মসিহে বিশ্বাস স্থাপন করা৷ তিনি জানতেন, মনুষ্যগণ আশা করে তিনি নিজেই ঈসা মসিহ হিসেবে দেখা দেবেন৷ কিন্তু তিনি কোন প্রলোভনে পড়েন নাই এবং প্রভূর পথকেই তৈরি করেছেন৷ তিনি জানতেন মসিহের নামে যিনি আসছেন তিনি মানুষদেরকে পাকরুহে বাপ্তিস্ম দেবেন৷ যোহন এটাও জানতো যে, মানুষের মধ্যে মনস্তাতি্বক অনুতাপ স্বীকার করা যথেষ্ট নয়, এমনকি, সে যদি পাপ মোচনের জন্য বাপ্তিস্ম নেয় এবং সে জানতো আমাদের সবার সম্পূর্ণ নবজীবন লাভ করা প্রয়োজন৷ খোদা তাকে হৃদয় পরিবর্তনের জন্য কোন কতর্ৃত্ব দেন নাই, যেমন তিনি পুরাতন নিয়মের কোন নবিকে তা দেন নাই৷ এই অধিকার সংরক্ষিত ছিল মূল নূরের জন্য যা জীবনদানকারী বাক্য এবং যা একটি মানুষকে নব জীবন দিতে সক্ষম, তার কর্তৃত্বের মাধ্যমে যখন তারা তাঁর নামের ওপর বিশ্বাস করে এবং তাঁর আলোর মধ্যে প্রকাশিত হয়৷ এইভাবে যোহন অসংখ্য মানুষকে মসিহের উপর বিশ্বাস আনতে পরিচালিত করেন, এটা জেনে সে একমাত্র বিশ্বাসী তাদেরকে নতুন যুগে নিয়ে যাবে৷

বাপ্তিস্মদাতা যোহনের শিক্ষা অনুসরণ করে অ্যাপেল্লো একজন পরমউসাহী এবং পরিশ্রমী দার্শনিক হয়েছিলেন৷ সত্যিকারভাবে নতুন নিয়মের আলোর অভিজ্ঞতা ব্যতিতই সে মসিহের জন্য ধর্ম প্রচার শুরু করেন, কিন্তু যখন সে নিজেকে মসিহের কাছে সমর্পিত করল, তখন তার হৃদয়ে নূর প্রবেশ করল এবং প্রভুর নূরে উত্‍ভাসিত হলো এবং অন্ধকারে আলোকিত হলো৷ সে অনেককেই আলোকিত করেছিল৷ (প্রেরিত - ১৮:২৪-২৮)

প্রার্থনা : ও প্রভু ঈসা মসিহ, আমরা তোমাকে বড় করে দেখি এবং তোমাকে ধন্যবাদ দেই কারণ তুমি জগতের নূর এবং ভাগ্যাহতদের আশা৷ তুমি আমাদের হৃদয়ের অন্ধকারকে আলোকিত করেছ, আমাদের পাপসমূহকে উদ্ঘাটন করেছ ও ক্ষমা করেছ৷ আমরা তোমাকে ধন্যবাদ দেই কারণ তুমি আমাদেরকে নূরের সন্তান হিসাবে সৃষ্টি করেছ এবং অনন্ত জীবন দিয়ে মুক্ত করেছ৷ আমরা তোমার কাছে অনুগ্রহ চাই, হাতে করে তোমার আলোর জ্যোতি আমাদের বন্ধু-বান্ধব এবং স্বজনদের কাছে পেঁৗছাই এবং তারা সত্যিকারভাবে অনুতপ্ত হয় এবং বিশ্বাসে তোমার নূরে অবস্থান করে৷

প্রশ্ন:

৯. বাপ্তিস্মদাতা যোহনের কার্যাদির মূল উদ্দেশ্যগুলো কী ছিল?

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on June 06, 2012, at 12:01 PM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)