Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- John - 111 (Crucifixion and the grave clothes; Dividing the garments and casting the lots)
This page in: -- Arabic -- Armenian -- BENGALI -- Burmese -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- Hausa? -- Hindi -- Indonesian -- Kiswahili -- Kyrgyz -- Malayalam -- Peul -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish? -- Tamil -- Telugu -- Turkish -- Urdu -- Uyghur? -- Uzbek -- Vietnamese -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

যোহন - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলছে
যোহন বর্ণীত মসিহের নাজাতের বারতার সুসমাচার ওপর অধ্যয়ন
চতুর্থ খন্ড - নূর অন্ধকারকে জয় করে (যোহন ১৮:১ - ২১:২৫)
ক - গ্রেফতার হওয়া থেকে সমাহিত করা অবধি ঘটনা সমূহ (যোহন ১৮:১ - ১৯:৪২)
৪. সলিব ও মসিহের মৃতু্যবরণ ইউহোন্না (যোহন ১৯:১৬খ-৪২)

ক) সলিবে হত্যা এবং কাফনের কাপড় (যোহন ১৯:১৬খ-২২)


যোহন ১৯:১৬খ-১৮
তখন পীলাত ঈসা মসিহকে ক্রুশের ওপরে হত্যা করবার জন্য তাঁদের হাতে দিয়ে দিলেন৷ তখন সৈন্যরা ঈসা মসিহকে নিয়ে গেল৷ ঈসা মসিহ নিজের ক্রুশ নিজে বয়ে নিয়ে মাথার খুলির স্থান নামে একটা জায়গায় গেলেন৷ সেই জায়গার হিব্রম্ন নাম ছিল গলগথা৷ সেখানে তারা ঈসা মসিহকে ক্রুশে দিল- ঈসা মসিহকে মাঝখানে আর তাঁর দু'পাশে অন্য দু'জনকে দিল৷

একটি সেনাদল মৃতু্যদ-প্রাপ্ত দুজন ডাকাত সলিবে টাঙ্গিয়ে হত্যা করার জন্য আদিষ্ট হয়েছিল, পীলাত তাদের হাতে তৃতীয় দোষী ব্যক্তি হিসেবে সলিবে মেরে ফেলার জন্য মসিহকে তুলে দিলেন৷ সৈন্যরা প্রত্যেকের ঘাড়ে নিজ নিজ সলিব তুলে দিল; বহন করে বদ্ধভুমে নিয়ে যাবার জন্য, কেননা আপন আপন মৃতু্যর ব্যবস্থা আপনাকেই বহন করতে হবে৷ মসিহ সলিব বহন করতে কোনো আপত্তি করলেন না, এবং পথিমধ্যে ফেলেও রাখলেন না৷ শহরের গলি দিয়ে তিন জনই সলিব বহন করে ক্লানত্ম অবসন্য অবস্থায় উত্তর পশ্চিম দরজায় পৌছালো৷ তারপরে তারা গলগথা নামক পাহাড়ে পৌছালো কারণ মাথার খুলি নামক একটি উচুস্থান ছিল যা শহরের দেয়ালের চেয়েউচুতে অবস্থিত৷ শহরের লোকজন শহরের বাহিরে মৃতু্যদ-প্রাপ্ত ব্যক্তিদের সাজাপাবার দৃশ্যটি দেখতে পেত৷

ইউহোন্না সলিবের বিষয়ে খুব বেশি কিছু বর্ণনা দেন নি৷ মারাত্মক কিছু বর্ণনা দিতে তার কলম তিনি চালনা করেন নি৷ ঐশি প্রেম অস্বীকার বা প্রত্যাখ্যান করে মানুষ রয়েছে যন্ত্রণাকাতর, ফলে নরকের জ্বালায় দিবানিশি তারা যন্ত্রণা পোহাচ্ছে৷ পাশবিক শক্তিতে তারা তাকে হত্যা করেছে, যিনি পাকরূহের দ্বারা মানবরূপে আবিভর্ুত হলেন৷ প্রত্যাক্ষান করলো মসিহের কোরবানি যা জগতের পাপের কাফফারা শোধ দিতে দেয়া হয়েছে৷

সলিবে তিনি সমাদরে সম্ভাসিত হন নি, বরং নির্যাতনের গভীরতার মাধ্যমে তার অসীম ধৈর্য ও আত্মত্যাগের পরিচয় তুলে ধরেছেন৷

দুইজন ডাকাতের মধ্যে তাকে সলিববিদ্ধ করায় কী অসম্মান প্রকাশ পেতে পারে? তারা অভিশাপ দিচ্ছিল যারা তাদের সলিবে হত্যার ব্যবস্থা নিয়েছি৷

করম্ননাময় প্রভু জীবনে শেষ মুহুর্তে পাপীদের প্রতি অনুকম্পা প্রকাশ করলেন৷ আর অনুকম্পা প্রকাশের জন্যই খোদার পুত্র মনুষ্যপুত্ররূপে জন্ম নিয়েছেন৷ এর ফলে পতিত অবাধ্য পথহারা মানুষগুলো খোদার সনত্মান হিসেবে যোগ্য হতে পারে৷ অবনত হবার শেষ সত্মর পর্যনত্ম তিনি নেমেছিলেন যাতে কেউ দোষারোপ করতে না পারে যে পতিতদের পর্যায়ে পৌছা ঈসা মসিহের পক্ষে সম্ভব নয়৷ আপনি পতনের যতই গভীরে পৌছান না কেন, এবং যেভাবেই আপনার পতিত দশা হোক না কেন, মসিহ আপনাকে ক্ষমা করতে পারেন আপনার মারাত্মক অপরাধ থেকে এবং ধৌত করতে পারেন সম্পূর্ণরূপে৷

যোহন ১৯:১৯-২০
পীলাত একটা দোষনামা লিখে ঈসার ক্রুশের ওপরে লাগিয়ে দিলেন৷ তাতে লেখা ছিল, 'নাসরতের ঈসা, ইহুদিদের বাদশাহ৷' যেখানে ঈসাকে ক্রুশে দেওয়া হয়েছিল সেই জায়গাটা শহরের কাছে ছিল বলে ইহুদিদের অনেকেই সেই দোষনামা পড়ল৷ সেটা হিব্রম্ন, রোমীয় আর গ্রীক ভাষায় লেখা ছিল৷

সৈন্যরা দুই ডাকাতের মাঝে তাকে সলিববিদ্ধ করলো, উদ্দেশ্য রাজা বলে দাবি করার জন্য টিটকারী দেয়া৷ পীলাত 'ইহুদি পরামর্শ পরিষদদের' ভর্তসনা করে চললো, কেননা তার ইচ্ছার বিরম্নদ্ধে মসিহকে হত্যা করার জন্য তারা চাপ প্রয়োগ করেছে৷ সর্বোপরি মসিহের মাথার উপর একটা পস্নাকার্ড লিখে দিলেন যাতে ইহুদিদের অভিযোগে তাকে হত্যা করা হলো৷

খোদা এ উপাধিটি ইহুদিদের বিচার করার কাজে লাগালেন, ইনি ইহুদিদের রাজা৷ আসলে মসিহ প্রকৃতার্থে রাজা, যিনি ধার্মিকতা, প্রেম ও বিনম্রতা নিয়ে আবিভর্ূত হয়েছেন৷ মাটির পৃথিবীতে তিনি বেহেশত প্রতিষ্ঠা করেছেন৷ ইহুদিরা দোযখ পছন্দ করে বিধায় তাদের বেহেশতি রাজাকে সমাজ থেকে বিতাড়িত করে দিয়েছে৷ সে কারণেই তিনি গোটা বিশ্বের রাজা হতে পেরেছেন৷ আসলে বিশ্ব 'সলিবে হত রাজাকে' বর্তমান বিশ্ব বিশ্বাসে গ্রহণ করে না, প্রেমের পরাকাষ্ঠাকে তাড়িয়ে ফেরে?

যোহন ১৯:২১-২২
তখন ইহুদিদের প্রধান ইমামেরা পীলাতকে বললেন, 'ইহুদিদের বাদশাহ,' এই কথা লিখবেন না, বরং লিখুন, 'এ বলত, আমি ইহুদিদের বাদশাহ৷' পীলাত বললেন, 'আমি যা লিখেছি তা লিখেছি৷'

প্রধান ইমাম পীলাতের নিন্দাসূচক কথার অর্থ এবং হুমকি বুঝতে পেরেছিল৷ তারা তাদের রাজাকে প্রত্যাখ্যান করেছিল, এবং বুঝতে পেরেছিল পিলাতের মনের অবস্থা৷ তবে যাকে সলিবে হত্যা করা হয়েছে তাকে আরো বেশি ঘৃণা করেছে৷

পীলাত উপলব্ধি করতে পেরেছিলেন যে উক্ত দোষনামা সিজারের মনোপুতঃ হয়েছে, সে কারণে তিনি তিনটি ভাষায় তা লিখেছিলেন যাতে শিক্ষিত লোকজন, উক্ত পথে যাতায়াতকারী যাত্রীগণ যেন দেখতে পায় এবং বুঝতে পারে কোনো নাগরিক যদি রাষ্ট্রের বিরম্নদ্ধে অপরাধ করে তবে তাদেরও এবংবিধ শাসত্মি পেতে হবে৷ ৭০ শতকে ইহুদি সমপ্রদায় রোমান সরকারের বিরম্নদ্ধে বিদ্রোহ করেছিল, ফলে হাজার হাজার বিদ্রোহিকে জেরম্নজালেমের দেয়ালের চতুর্দিকে সলিবে টাঙ্গিয়ে হত্যা করেছে৷


খ) মসিহের পোশাক ভাগাভাগি করা এবং লটারি ধরা (যোহন ১৯:২৩-২৪)


যোহন ১৯:২৩-২৪
ঈসাকে ক্রুশে দেবার পর সৈন্যেরা তাঁর কাপড়-চোপড় নিয়ে নিজেদের মধ্যে চার ভাগে ভাগ করল৷ পরে তারা ঈসার কোর্তাটাও নিল৷ সেই কোর্তায় কোনো সেলাই ছিল না, উপর থেকে নীচ পর্যনত্ম সবটাই বোনা ছিল৷ তা দেখে সৈন্যেরা একে অন্যকে বলল, 'এটা না ছিঁড়ে বরং ভাগ্য পরীক্ষা করে দেখি এটা কার হবে৷' এটা ঘটেছিলো যাতে পাক-কিতাবের এই কথা পূর্ণ হয়, তারা নিজেদের মধ্যে আমার কাপড়-চোপড় ভাগ করছে, আর আমার কাপড়ের জন্য তারা ভাগ্য পরীক্ষা করছে৷

সৈনিকদের মধ্যে যে চারজন মসিহকে সলিবেবিদ্ধ করেছে তাদের প্রাপ্য ছিল ভাগ করে তাঁর পোশাকটি পাবার৷ শতপতি এ ক্ষুদে ব্যাপারে অবনত হয়ে নাক গলাতে আগ্রহ বোধ করেন নি৷ তারা চারজন মসিহকে অসম্মান ও উলঙ্গ করে পরিধেয় শেষ সম্বলটুকু খুলে নিয়ে গেল৷ সাধারণতঃ সলিববিদ্ধ দোষীদের আরো হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য উলঙ্গ করে দেয়া হয়৷

ঈসা মসিহের বিনম্রতা তাঁর গৌরব প্রকাশের পরিচয় বাহক৷ জোড়াবিহীন টিউনিক প্রমান বহন করে যে তিনি প্রধান ইমাম৷ ঈসা মসিহ ঐশি মনোনীত মহাইমাম যিনি বিশ্ববাসির পক্ষে ওকালতি করেন, আর এ কারণেই তিনি হয়েছেন চরমভাবে তাড়িত নির্যাতিত৷

সহস্র বত্‍সর পূর্বে সলিবের ওপর পাকরূহ ভবিষ্যদ্বানী করেছিলেন, যা আমরা আল জবুর ২২ অধ্যায়ে দেখতে পাই, 'তারা আমার কোর্তা ভাগ করেছে' সেনাদের মধ্যে এটা প্রচলিত ছিল৷ পাকরূহ আরও আগাম কথা ঘোষণা করেছে, তারা মসিহের কোর্তার ভাগ নিয়ে লটারি বসাবে৷ সলিবের ঘটনা নিখুঁতভাবে পাকরূহ পূর্বেই বর্ণনা দিয়েছেন, ঘোষণা দিয়েছেন যে মসিহের সলিবীয় মৃতু্য খোদারই পরিকল্পনা৷ মসিহ যেমন বলেছেন বেহেশতি পিতার অজানত্মে মাথার একটা চুল পর্যনত্ম খসে পড়তে পারে না৷ যারা বলে মসিহের সলিবীয় মৃতু্য অসম্ভব ব্যাপার, তারা কেবল ঐতিহাসিক সত্য ঘটনাকেই অস্বীকার করছে না, উপরন্তু শতশত বত্‍সর পূর্বে পাকরূহের মাধ্যমে খোদার পরিকল্পনার অসত্মিত্বেও অনাস্থা স্থাপন করে৷

অজ্ঞতাহেতু এবং ভাবলেশহীনভাবে সৈনিকগণ মন্দ আচরণ করেছে সলিবের পাদপ্রানত্মে বসে৷ অত্যাচারের বিষয়ে তারা বিড়বিড় করছিল৷ তাদের মধ্যে অনুকম্পার কোনো লেশ মাত্র চিহ্ন ছিল না৷ কল্পনাও করতে পারে নি যে জগতের মুক্তিদাতা জগতের পাপমুক্তির কারণে সলিব হতে রক্ত ঝরাচ্ছেন৷

ভ্রাতঃ মসিহের সাথে আপনিও কি সলিববিদ্ধ হয়ে তাঁর মৃতু্যকে আপনার নিজের মৃতু্য বলে কি বরণ করেছেন? অথবা ধনদৌলত ও মানসম্মানের পিছনে ছুটছেন৷ সলিবে হত ব্যক্তিকে কি আপনি ভালোবাসেন, এবং তাঁর মৃতু্যর মাধ্যমে রম্নহানি পবিত্রতা ও প্রকৃত ধার্মিকতা গ্রহণ করেছেন কি? অথবা হয়ত আপনি সবকিছু উপরি উপরি লক্ষ্য করছেন, অথবা অবজ্ঞাভরে তাঁকে অবলোকন করে ফিরছেন? পাকরূহ খোদার পুত্রের সাথে যুক্ত করে বিশ্বাস ও মহব্বত সৃষ্টি করে আপনাকে তাঁর মৃতু্য, কবর প্রাপ্তি ও ত্যাগী জীবনে উনি্নত করে দেন৷

প্রার্থনা: প্রভু মসিহ, সলিব বহন করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ দেই৷ আপনার ধৈর্য্য, প্রেম ও আশির্বাদের জন্য আপনাকে ভক্তিজ্ঞাপন করি৷ আমাদের কৃত পাপ ও জগতের পাপ ক্ষমা করার জন্য আপনার প্রশংসা করি৷ লজ্জাকর সলিবে আত্মত্যাগের মাধ্যমে আপনিই আমার পাপভার বহন করেছেন এবং মানবজাতিকে খোদার সাথে যুক্ত করে দিয়েছো৷ আপনি আমাদের নাজাতদাতা ও সুপারিশকারী৷

প্রশ্ন:

১১৫. সলিবে টাঙ্গানো দোষনামায় লেখাটির অর্থ কি?

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on July 30, 2013, at 10:47 AM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)