Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- John - 107 (Jesus questioned before Annas and Peter's threefold denial)
This page in: -- Arabic -- Armenian -- BENGALI -- Burmese -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- Hausa? -- Hindi -- Indonesian -- Kiswahili -- Kyrgyz -- Malayalam -- Peul -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish? -- Tamil -- Telugu -- Turkish -- Urdu -- Uyghur? -- Uzbek -- Vietnamese -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

যোহন - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলছে
যোহন বর্ণীত মসিহের নাজাতের বারতার সুসমাচার ওপর অধ্যয়ন
চতুর্থ খন্ড - নূর অন্ধকারকে জয় করে (যোহন ১৮:১ - ২১:২৫)
ক - গ্রেফতার হওয়া থেকে সমাহিত করা অবধি ঘটনা সমূহ (যোহন ১৮:১ - ১৯:৪২)

২. হাননের সম্মুখে মসিহকে জেরা করা এবং পিতরের ৩ বার অস্বীকার (যোহন ১৮:১৫-২১)


যোহন ১৮:১৫-১৮
শিমোন-পিতর এবং আর একজন উম্মত ঈসার পিছনে পিছনে গেলেন৷ সেই অন্য উম্মতকে মহা-ইমাম চিনতেন৷ সেই উম্মত ঈসার সঙ্গে সঙ্গে মহা-ইমামের উঠানে ঢুকলেন, কিন্তু পিতর বাইরে দরজার কাছে দাঁড়িয়ে রইলেন৷ তখন মহা-ইমামের চেনা সেই উম্মত বাইরে গিয়ে দরজার পাহারাদার মেয়েটিকে বলে পিতরকে ভিতরে আনলেন৷ সেই মেয়েটি পিতরকে বলল, 'তুমিও কি এই লোকটির উম্মতদের মধ্যে একজন?' পিতর বললেন, 'না, আমি নই৷' তখন খুব শীত পড়েছিল৷ এইজন্য গোলামেরা এবং কর্মচারীরা কাঠকয়লার আগুন জ্বেলে সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে আগুন পোহাচ্ছিল৷ পিতরও তাদের সঙ্গে দাঁড়িয়ে আগুন পোহাচ্ছিলেন৷

রাতের বেলা পিতর এবং ইউহোন্না দূর থেকে মসিহকে অনুসরণ করতে ছিলেন৷ ইউহোন্না মহা-ইমামের আত্মীয় বিধায় তাঁর দরবারে সহজে প্রবেশ লাভ করতে পেরেছিলেন৷ কিন্তু পিতরের পক্ষে তা সম্ভব ছিল না৷ কেননা দরজার পাহারাদার বসানো ছিল৷

পিতর দরজার কাছে অন্ধারে দাঁড়িয়ে ছিলেন, এ বিষয়টি ইউহোন্নার মনকে ব্যাকুল করেছিল৷ তাই পিতরকে সাহায্য করার মানসে পাহারাদার এক দাসিকে বললেন! উক্ত মহিলা খুসি হতে পারলোনা, উল্টো পিতরকে জেরা করলো, বললো, 'তুমি কি তার সাহাবিদের মধ্যে একজন নও?' পিতর উত্তরে অস্বীকার করে বললেন, 'না আমি নই'৷ এমন ভান করলেন যে, সে এসকল বিষয়ের কিছুই জানে না, এবং তার কোনো সম্বন্ধই নেই এ বিষয়ে৷ একথা বলার পর পিতর আগুন পোহাতে বসলেন, কেননা তখন ছিল রাত ভীষণ ঠা-া পড়েছিল৷

যোহন ১৮:১৯-২৪
মহা-ইমাম তখন ঈসাকে তাঁর উম্মতদের বিষয়ে আর তাঁর শিক্ষার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করলেন৷ ঈসা মসিহ জবাবে বললেন, 'আমি লোকদের কাছে খোলাখুলিভাবেই কথা বলেছি৷ যেখানে ইহুদিরা সবাই এক সঙ্গে মিলিত হয় সেই সব মজলিস-খানায় ও বায়তুল মোকাদ্দসে আমি সব সময় শিক্ষা দিয়েছি৷ আমি তো গোপনে কিছু বলি নি; তবে কেন আমাকে জিজ্ঞাসা করছেন? আমার কথা যারা শুনেছে তাদেরই জিজ্ঞাসা করম্নন আমি তাদের কি বলেছি৷ আমি যা বলেছি তা তাদের অজানা নেই৷ ঈসা যখন এই কথা বললেন তখন যে কর্মচারীরা কাছে দাঁড়িয়ে ছিল তাদের মধ্যে একজন তাঁকে চড় মেরে বলল, 'তুমি মহা-ইমামকে এইভাবে জবাব দিচ্ছ?' ঈসা তাকে বললেন, 'আমি যদি খারাপ কিছু বলে থাকি তবে তা দেখিয়ে দিন৷ কিন্তু যদি ভালো কথা বলে থাকি তবে কেন আমাকে মারছেন?' তখন হানন ঈসাকে বাঁধা অবস্থায়ই মহা-ইমাম কাইয়াফার কাছে পাঠিয়ে দিলেন৷

প্রাথমিক অনুসন্ধানের বিষয় হলো ঈসা মসিহের অপরাধ বিষয়ক, তাঁর ব্যক্তিত্ব এবং তাঁর যে দাবি দাওয়া তেমন কোনো বিষয় ছিল না৷ অনুসন্ধানের মূল বিষয় ছিল তার ব্যতিক্রমি শিক্ষা এবং সাহাবিদের বিষয় নিয়ে৷ ঐ সময় সমাজে অনেক গোপন সংস্থা কাজ করতো৷ অনুসন্ধানকারী দল দ্রম্নত খুঁজে ফিরছিলো অশানত্মি রাস্ট্রদ্রোহী কর্মকা-ের সংকেত রয়েছে কিনা যা তাঁর সাহাবিদের দ্বারা সংগঠিত হতে পারে৷

গোপন আন্দোলনের অসত্মিত্বের কথা ঈসা মসিহ প্রথম থেকেই অস্বীকার করেন, বরং সমাজগৃহে এবং ধর্মধামে প্রকাশ্যে যে শিক্ষা দিতেন, সেখানে অনেক শ্রোতা উপস্থিত হতেন৷ সমাজপতিগণ যদি তাঁর শিক্ষামূলক বিষয়ে এবং তাঁর ব্যাপারে আনত্মরিক হতেন তবে তারা তাঁর শিক্ষা এবং ঐশি প্রত্যাদেশের বিষয়ে সহজেই বুঝতে পারতেন৷ নির্ভয়ে ঈসা মসিহ মহানায়কের সম্মুখে উপস্থিত হতে পেরেছেন৷ সহসা মহা-ইমামের এক দাস ঈসা মসিহকে আঘাত করে৷ ঈসা মসিহ তাকে প্রতিঘাত করেন নাই, অথবা তার ওপর ক্রুদ্ধও হন নি৷ তিনি তার অপরাধের ভয়াবহতা দেখিয়ে দিলেন, এবং প্রশ্ন করলেন কেন সে অনাহুত তাকে আঘাত করলো৷ নিরপরাধ ঈসা মসিহকে অকারণে আঘাত করার জন্য ওই দাসের অনুতপ্ত হওয়া এবং ক্ষমা চাওয়া উচিত৷

মসিহের প্রতিবাদ পরোক্ষভাবে মহা-ইমামের ওপর বর্তায়, কেননা ওই দাস তো তারই অনুগত অধিনসত্ম৷ তিনি অপরাধ ঘটতে দিলেন৷ বর্তমানেও এমন ধরনের অন্যায় অত্যাচার ঘটে থাকে নিরপরাধ ব্যক্তিদের বিরম্নদ্ধে, ব্যক্তির দ্বারা অথবা নেতানেতৃদের ঈশারায়, অধিনসত্ম দাসের ওপর যে সকল তাড়না করা হয় তা মসিহের নিজের ওপরেই অত্যাচারের সমতুল্য৷ আনান যখন বুঝতে পারলো তার দেয়া হুমকি-ধামকিতে ঈসা মসিহ কাবু বা ভীত তো হলেনই না উপরন্তু নিজেই বিচারকের মতো আনানকেই প্রশ্ন ছুড়ে মারলেন ন্যায় এবং সত্যের বিষয়ে ব্যাখ্যা করার জন্য৷ তখন আনান বন্য খেকশিয়াল বলে পরিচিত তার জামাতার কাছে তাকে পাঠিয়ে দিলেন নিজেকে ঝামেলা থেকে মুক্ত হবার জন্য৷

যোহন ১৮:২৫-২৭
যখন শিমোন-পিতর দাঁড়িয়ে আগুন পোহাচ্ছিলেন তখন লোকেরা তাঁকে বলল, 'তুমিও কি ওর উম্মতদের মধ্যে একজন?' পিতর অস্বীকার করে বললেন, 'না, আমি নই৷' পিতর যার কান কেটে ফেলেছিলেন তার এক আত্মীয় মহা-ইমামের গোলাম ছিল৷ সে বলল, 'আমি কি তোমাকে বাগানে তার সঙ্গে দেখি নি?' পিতর আবার অস্বীকার করলেন, আর তখনই একটা মোরগ ডেকে উঠলো৷

কাইয়াফা ঈসা মসিহের সাহাবিদের বিষয়ে জেরা করলেন৷ দরবারে তখন দুইজন সাহাবি উপস্থিত ছিলেন, কিন্তু তারা যে ঈসা মসিহের অনুসারী বা সাহাবি তা তারা অস্বীকার করলেন না৷ আগুনের শিখার আলোকে পিতরের চেহারা দৃষ্ট হয়েছিলো এবং তিনি যে ওই এলাকার লোক নয় তা বুঝতে পেরে একজন মহিলা দাসি সন্দেহ করে জানতে চাইলো, পিতর আসলে ঈসা মসিহের সাহাবি কিনা, পিতর দ্রম্নত না না বলে অস্বীকার করলেন৷

কোনো এক ব্যক্তি সন্দেহ করে তাকে দোষারোপ করলো৷ এমন প্রশ্ন শুনে সকলে তার দিকে ঘৃণাভরে তাকালো৷ বিশেষ করে একজন দাস নিশ্চিত করে বললো যে, সে তাকে চেনে, কেননা গেত্‍সিমানি বাগানে তাকে দেখতে পেয়েছে৷ বিপদ চূড়ানত্ম পর্যায়ে পৌছালো৷ পিতর যে দাসের কান কেটে ফেলেছিল, তার আত্মীয় এসে সাখ্য দিলে পর পিতর মহাবিপাকে পড়লো৷ ইউহোন্না এ বিষয়ে বিশদ ব্যাখ্যা দেননি, অস্বীকৃতির কারণে পিতরের ওপর যে কি অভিশাপ নেমে এসেছিলো, কেননা তাঁর অস্বীকৃতির কারণে পিতর যে ভিতু এবং অযোগ্য সাহাবি তার প্রমান দিলেন৷

মোরগ ডাকার সাথে সাথে পিতরের কানে বিচারকের রায় ঘোষণার মতো বাজলো৷ ঈসা মসিহ সাহাবিদের মধ্য থেকে কাওকে খুঁজে পেলেন না যে কিনা আমৃতু্য ঈসা মসিহের পদাংক অনুসরণ করবে৷ তাদের সকলেই পাপে পতিত হয়েছে, তাঁকে বিপন্ন অবস্থায় ফেলে কলের স্রোতে ভেসে গেছে, মিথ্যা বলেছে, অথবা প্রত্যাখ্যান করেছে৷ ইউহোন্না পিতরের অনুতাপ অশ্রম্নর করা প্রকাশ করেন নি, তবে ঈসা মসিহকে অস্বীকার করার যে ভয়াবহ রূপ, তা উচ্চকিতভাবে প্রকাশ করেছেন৷ মোরগ তিনবারই ডেকে উঠলো আর তা ছিল পিতরের জন্য হুশিয়ারীবার্তা৷ যতবার আমরা পাপেলিপ্ত হই, মিথ্যা বলি এবং ঈসা মসিহকে অস্বীকার করি, ততবার যেন মোরগ ডেকে ওঠে সে সাবধানতামূলক ব্যবস্থা প্রভু আমাদের জন্য রেখে দিয়েছেন৷ সত্যের রূহ আমাদের ওপর অবতরণ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন৷ প্রভুর কাছে যাঞা করম্নন যেন তিনি সত্যপ্রকাশের জিহ্বা, সরল হৃদয় এবং সুস্থ মন-মানসিকতা দান করেন৷

প্রার্থনা: প্রভু ঈসা মসিহ, তোমাকে ধন্যবাদ দেই, কেননা তুমি সত্য, ধৈর্যশীল এবং মহান৷ সর্বপ্রকার মিথ্যাচার ও অতিকথনের জন্য আমাদের মাফ করো৷ তুমি মানবরূপে অবিভর্ূত হয়ে পাকরূহের দ্বারা তোমার সাথে আমাদের যুক্ত করেছো৷ তাই আমাদের জিহ্বা আর যেন মিথ্যাচার না করে অর্থাত্‍ আমরা যেন আর মিথ্যা কথা না বলি৷ তোমার সত্যে আমাদের প্রতিষ্ঠিত করো৷ আর বিনম্রভাবে, প্রজ্ঞাসহ ও দৃঢ়ভাবে তোমার বিষয়ে যেন সাক্ষ্যবহন করতে পারি৷

প্রশ্ন:

১১১. আনানের সম্মুখে ঈসা মসিহের যে জেরা করা হচ্ছিল, তখন তাঁর সাথে পিতরের কি সম্বন্ধ দেখা গিয়েছিল?

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on July 30, 2013, at 10:27 AM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)