Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- John - 099 (Christ's peace in us defeats the world's afflictions)
This page in: -- Arabic -- Armenian -- BENGALI -- Burmese -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- Hausa? -- Hindi -- Indonesian -- Kiswahili -- Kyrgyz -- Malayalam -- Peul -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish? -- Tamil -- Telugu -- Turkish -- Urdu -- Uyghur? -- Uzbek -- Vietnamese -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

যোহন - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলছে
যোহন বর্ণীত মসিহের নাজাতের বারতার সুসমাচার ওপর অধ্যয়ন
দ্খন্ড ৩ - সাহাবিদের প্রত্যেকের মধ্যে নূর জ্বলিতেছে (যোহন ১১:৫৫ - ১৭:২৬)
ডি. গেত্‍সিমানী যাওয়ার পথে বিদায় সম্ভাবন (যোহন ১৫:১ - ১৬:৩৩)

৬. আমাদের মধ্যে ঈসা মসিহের শান্তি দুনিয়ার দূর্দশাকে পরাজিত করে (যোহন ১৬:২৫-৩৩)


যোহন ১৬:২৫-২৬
২৫. 'এই সমস্ত শিক্ষার কথা আমি তোমাদের নিকট উদাহরনের মধ্য দিয়েই বলিলাম৷ তবে এমন সময় আসিতেছে যখন আমি আর উদাহরনের মধ্য দিয়ে তোমাদের নিকট কথা বলিব না, কিন্তু খোলাখুলিভাবেই পিতার বিষয়ে বলিব৷ ২৬. সেই দিনে তোমরা নিজেরাই আমার নামে চাহিবে, আর আমি বলিতেছি না যে, আমিই তোমাদে পক্ষ হইয়া পিতার নিকট অনুরোধ করিব৷

ঈসা মসিহ বেহেস্তি সত্যগুলোকে রূপক আকারে প্রকাম করেছেন যে রহস্য দুনিয়ার কাছে লুকায়িত আছে, কিন্তু যারা ন্যায়পরায়নতার জন্য ব্যাকুল তাদের কাছে তিনি সেগুলো প্রকাশ করেছিলেন৷ ঈসা মসিহ প্রত্যাশা করতেন যেন তার সাহাবিরা তাকে স্পষ্টভাবে বুঝতে পারে এবং সেই দিনের আশায় ছিলেন যেদিন তিনি মৃতু্য থেকে পুনুরুত্থান করবেন এবং বেহেস্তে আরোহন করে খোদার ডান হাতের উপর বসবেন এবং তার বেহেস্তি রূহকে তাদের কাছে পাঠাবেন৷ তিনি বলেছিলেন এই ঘটনাগুলি এক দিনেই ঘটবে৷ যখন তার সাহাবিদের হৃদয়ে পাক-রূহ আসবে তখন রূপক বর্ণনা শেষ হয়ে যাবে কারণ বিশ্বাসিদের মনে ঈসা মসিহের রূহ আলোকিত করবে এবং রূপক কাহিনীর পর্ব শেষ হবে৷ খোদা হলেন পিতা এবং ঈসা মসিহ তার পুত্র৷ পাক-রূহ ব্যতিত কোন মানুষ খোদাকে জানতে পারে না, কিন্তু পুত্রের রূহ আমাদেরকে খোদার পরিবারে অনর্্তভূক্ত করে৷ আপনার কি একজন জাগতিক পিতা আছে? আপনি কি তার সাথে কথা বলেন? তিনি কি আপনার বিষয়ে যত্নবান? এগুলি স্বজ্ঞামূলক প্রশ্ন৷ উচ্চ পর্যায়ে ঈসা মসিহের বাক্য এবং তার রূহের সাত্বনা আমাদেরকে নিশ্চিত করে যে খোদা সর্বশক্তিমান, পবিত্রজন যিনি আমাদের সাথে ব্যক্তিগতভাবে ঘনিষ্ট এবং আমাদের ভালোবাসেন৷ আমরা তার প্রিয় সন্তান এমনকি যদিও আমরা সবাই পাপী কিন্তু ঈসা মসিহের রক্তের মধ্য দিয়ে আমরা তার কাছে পবিত্র হয়েছি৷ খাঁটি প্রার্থনার জন্য পাক-রূহ আমাদের মুখ খুলে দেন কারণ এই রূহ ঈসা মসিহের৷ আধ্যাত্মিক প্রার্থনার ভিতর ঈসা মসিহ আমাদের মধ্যে কথা বলেন৷ আপনার প্রার্থনা হবে কথপোকথনের মত আপনার রূহ এবং আপনার বেহেস্তি পিতার মধ্যে যিনি পুত্রের সাথে এক৷

যোহন ১৬:২৬বি-২৮
২৬. আর আমি বলিতেছি না যে, আমি তোমাদের পক্ষ হইয়া পিতার নিকট অনুরোধ করিব৷ ২৭. পিতা নিজেই ত তোমাদের মহব্বত করেন, কারণ তোমরা আমাকে মহব্বত করিয়াছ ও বিশ্বাস করিয়াছ যে, আমি পিতা খোদার নিকট হইতে আসিয়াছি৷ সত্যই আমি পিতার নিকট হইতে এই দুনিয়াতে আসিয়াছি, আবার আমি এই দুনিয়া ছাড়িয়া পিতার নিকটেই যাইতেছি৷

যে পিতা তার সন্তানদের ভালোবাসে না সে কোন পিতাই না৷ খোদার নাম প্রকাশের মধ্য দিয়ে ঈসা মসিহ আমাদেরকে খোদার শক্তিমান ভালোবাসাকে সহজভাবে অনুধাবন করতে দিয়েছেন৷ যে কেউ পিতাকে জানে সে খোদাকেও জানে এবং সে খোদার সন্তানে রূপান্তরিত হয় এবং তার ভালোবাসার মধ্যে থাকে৷ ঐ নামের মধ্যে আমরা গোটা সুসংবাদকে এবং শাশ্বত আশা খুঁজে পাই৷ ঈসা মসিহ আপনার কাছে ঘোষণা করেন যে এখন থেকে মধ্যস্থতার ভালোবাসেন এবং তিনি প্রেম এবং করুনাময়পূর্ণ৷ যেহেতু ঈসা মসিহ সলিবের উপর মৃতু্যবরণ করেছেন তাই পিতা এবং আমাদের বৈশিষ্ট, পিতার কাছ থেকে তার আগমন এবং তার মধ্যে থাকার বিষয়ে অবগত সে পবিত্র ত্রিত্বের সানি্নধ্যে আসে৷ সে খোদার সংগে থাকে এবং পিতার রহমতেপূর্ণ হয় এবং চিরদিন রূহের মধ্যে আনন্দে থাকে৷

এক কথায় ঈসা মসিহ মুক্তির মোজেজাকে তার সাহাবিদের কাছে বিস্তারিতভাবে বর্ণনা করেন৷ যেখানে তিনি বিদ্বেস ও নির্যাতনের মধ্যে পড়েন কিন্তু যখন মানব জাতির জন্য তিনি ন্যায়পরায়নতাকে সলিবের উপর সম্পন্ন করেন তখন তিনি দুনিয়া ত্যাগ করে সরাসরি পিতার কাছে চলে যান, যিনি সকল প্রাণের উত্‍স৷

যোহন ১৬:২৯-৩০
২৯. তখন তাঁহার সাহাবিরা তাহাকে বলিলেন, 'দেখুন, এখন ত আপনি খোলাখুলি ভাবেই কথা বলিতেছেন, উদাহরনের মধ্য দিয়ে বলিতেছেন না৷ ৩০. এখন আমরা বুঝিতে পারিতেছি যে, আপনার অজানা কিছুই নাই, আর কেহ যে আপনাকে কোন কিছু জিজ্ঞাসা করে তাহার দরকারও আপনার নাই৷ এইজন্যই আমরা বিশ্বাস করি যে, আপনি খোদার নিকট হইতে আসিয়াছেন৷'

খোদার ভালোবাসার মহত্ব এবং ঈসা মসিহের শাশ্বত সত্ত্বা সম্পর্কে সাহাবিরা অবগত হচ্ছিল৷ ঈসা মসিহ হলেন সত্য খোদা যে পবিত্র এবং শাশ্বত৷ কিন্তু তারা এটা স্মরণ করতে ব্যর্থ হয়েছিল যে তিনি ছিলেন মনুষ্যদেহধারী প্রেম এবং তারা তাকে খোদা বলে ডাকেনি, এমনকি যদিও ঈসা মসিহ এই সত্যগুলোকে বার বার বলেছেন৷ তারা এই বিষয়গুলো তত্বগতভাবে মেনে নিয়েছিল৷

যোহন ১৬:৩১-৩২
৩১. ঈসা মসিহ তাঁহার সাহাবিদের বলিলেন, এখন কি তাহা হইলে বিশ্বাস হইতেছে? ৩২. দেখ, সেই সময় আসিতেছে, এমন কি, উপস্থিত হইয়াচে, যখন তোমরা দল ছাড়া হইয়া আমাকে একলা ফেলিয়া নিজের নিজের জায়গায় চলিয়া যাইবে৷ তবুও আমি একা নই, কারণ পিতা আমার সঙ্গে সঙ্গে আছেন৷

একটি মৃদু হাসির সাথে তিনি বললেন, 'তোমরা কি মনে কর যে কেবলমাত্র বুদ্ধিমত্তা দিয়ে তোমরা আমার আসল সত্ত্বাকে উপলব্ধি করতে পারবে? এই সকল জ্ঞান কি খাঁটি সত্যের মত? পরীক্ষার সময় আসছে এবং দেখবে যে তোমাদের বিশ্বাস ভালোবাসাহীন৷ তোমরা খোদাকে বুঝতে ব্যর্থ হও কারণ তোমরা তার পিতৃত্বের উপর ঈমান আন না৷ তোমরা সবাই পালিয়ে যাবে এবং আমাকে পরিত্যাগ করে চলে যাবে৷ তোমাদের বিশ্বাস হবে অনিশ্চিত'৷

'মৃতু্যর মধ্যে আমি একা নই কারণ পিতা আমার সাথে আছেন৷' সলিবের উপর ঈসা মসিহের চিত্‍কার কি বিসদৃশ, ' হে আমার খোদা তুমি কি আমাকে পরিত্যাগ করেছ?' না, কারণ খোদা, সেই পবিত্রজন তার চেহারাকে পুত্রের কাছ থেকে লুকিয়েছিলেন কিন্তু ঈসা মসিহ তার পিতার উপস্থিতির উপর বিশ্বাস অব্যাহত রেখেছিলেন৷ তার চিত্‍কার এই কথা নির্দেশ করে যে খোদা অপরিবর্তিত থাকেন, "আমি তোমাকে ছেড়ে যাব না এমনকি যখন আমি তোমাকে দেখতেও পাব না৷ তোমার হাতে আমার রূহকে সর্মপন করলাম"৷ খোদার পিতৃত্বের উপর ঈসা মসিহের বিশ্বাস আমাদের কারণে তার উপর যে বিচার নেমে এসেছিল তা বিজয় লাভ করেছিল৷ পিতার জন্য পুত্রের ভালোবাসা খোদার ক্রোধের আগুনকে যা আমাদের পাপ থেকে সৃষ্ট নির্বাপিত করেছিল৷ তার দৃঢ় বিশ্বাস খোদাকে দেখার জানালা আমাদের জন্য খুলে দিয়েছিল৷ কারণ তার মৃতু্যতে পিতার কাছে আমরা বলতে পারি, "আমি একা নাই কারণ পিতা আমার সঙ্গে আছেন৷

যোহন ১৬:৩৩
৩৩. 'আমি তোমাদের এই সমস্ত বলিলাম, যেন তোমরা আমার সঙ্গে যুক্ত আছ বলিয়া মনে শান্তি পাও৷ এই দুনিয়াতে তোমরা কষ্ট পাইতেছ, কিন্তু সাহস হারাইওনা; আমিই দুনিয়াকে জয় করিয়াছি৷'

ঈসা মসিহ তার বিদায়কালীন ভাষণে সকল বিশ্বাসীদের কাছে একটি সাত্বনা দিয়ে সংক্ষেপে শেষ করলেন৷ 'আমি অল্প সময়ের জন্য তোমাদের সাথে ছিলাম এবং তোমাদেরকে শিখিয়েছি যা তোমাদের হৃদয়কে বেহেস্তী শান্তিতে পূর্ন করতে পারে৷ অবিশ্বাসীদের কোন শান্তি নাই৷ আমি তোমাদের হৃদয়কে ক্ষমা করেছি এবং তোমাদের ভিতরের সত্বাকে পরিস্কৃত করেছি৷ আমি আমার শান্তির রূহকে তোমাদের মধ্যে রেখেছি৷ আমার বাক্যের মধ্যে থাক৷ আমি ব্যক্তিগতভাবে তোমাদের রক্ষক৷ আমি ছাড়া তোমাদের কোন নিরাপত্তা নাই৷ খোদার সাথে তোমাদের পুনরমিলন যা হলো সেই শান্তির ভিত্তি আমার রক্তের মধ্য দিয়ে তোমাদের পাপের ক্ষমা, যা ব্যতিত তোমাদের কোন স্বচ্ছ চেতনা থাকতে পারে না৷ আমি তোমাদের রক্ষা করেছি এবং আমার রূহ তোমাদের মধ্যে আছে৷ আমার শান্তি অলিক কিছু নয় কিন্তু এটা একটা বাস্তবতা৷ আমি তোমাদের শান্তি দিতে এসেছি তাকে গ্রহণ কর এবং আমার উপর বিশ্বাস রাখ৷'

'এই দুনিয়ায় তোমাদের জন্য শান্তি অপেক্ষা করছে এই চিন্তা কর না৷ না! অনেক বিপদ, নির্যাতন, অসুস্থতা, প্রবঞ্চনা, ভয় এবং মৃতু্য ওত্‍ পেতে আছে৷ আইনজ্ঞেরা তোমাদের প্রত্যাখ্যান করবে, ভাসা-ভাসা জ্ঞান সম্পন্ন লোকেরা তোমাদের সাথে উপহাস করবে৷ হাজার রকম মিথ্যা কথা এবং মিথ্যা দর্শন তোমাদের বিশ্বাসকে পরীক্ষা করবে৷ দাম্ভিকতা সঙ্গেই থাকবে৷ অর্থকে ভালোবেস না; সম্পদ তোমাদেরকে কোন নিরাপত্তা দেবে না৷'

'আমার ভালোবাসাকে জান এবং আমার নম্রতাকে অনুসরণ কর, আমার আত্ম-উত্‍সর্গ এবং আত্ম অস্বীকৃতির সঙ্গে থাক৷ আমি দুনিয়াকে জয় করেছি৷ আমি নিজের জন্য কিছু চাইনি৷ আমি খোদার পবিত্রজনের অপরিহার্য্য বৈশিষ্টের মধ্যে আছি৷ আমার মধ্য দিয়ে খোদার আজ্ঞা পরিপূর্ণ হয়েছে, তোমরা পবিত্র হও কারণ আমি পবিত্র৷ আমি ভালোবাসা পূর্ণাঙ্গ রূপ, আমার মধ্যে তোমরা পিতাকে দেখ৷'

তোমরা কি ঈসা মসিহের বিদায়কালীন ভাষণের মর্ম উপলব্ধি করেছ? তিনি তোমাদের পিতার সহভাগীতার মধ্যে রেখেছেন যাতে করে তোমাদের হৃদয় ঈসা মসিহের শান্তির সাথে সঙ্গতিপূর্ণ হয়৷ এই শান্তি বিশ্বাসীদের জীবনে সব থেকে গুরুত্বপূর্ন৷ দুনিয়া মন্দতার মধ্যে থাকবে এবং তোমাদের কষ্ট দেবে৷ যে কেউ ঈসা মসিহে বিশ্বাস করে সে খোদার দয়া পায়৷ ঈসা মসিহের এই বাণী কি তোমাকে পূর্ণ করেছে? তোমার মধ্যে পাক-রূহ কি বলেছ, 'পিতা আমার, পুত্র আমার নাজাতদাতা এবং পাকরূহ আমার মধ্যে বাস করে৷ একজন খোদা আমাদের মধ্যে আছেন৷ আমি তার রহমতের মধ্যে আছি৷'

প্রার্থনা: প্রভূ ঈসা মসিহ, তুমি আমার হৃদয় জয় করেছ এবং তোমার জন্য আমাকে কিনেছ৷ শয়তানের কবল থেকে তুমি আমাকে সুরক্ষা করেছ এবং মিথ্যার পঙ্কিলতা থেকে তুমি আমাকে মুক্ত করেছ৷ তুমি আমাকে অনন্ত জীবন দান করেছ৷ আমি মৃতু্যকে ভয় করি না কারণ আমি তোমার অপেক্ষায় আছি৷ তোমার ইচ্ছার মধ্যে আমাকে রাখ এবং তোমার ক্ষমতায় আমাকে পূর্ণ কর যাতে করে আমি সকল সাধুগনের সাথে তোমাকে মহামান্বিত করতে পারি এবং পিতার এবাদত করতে পারি৷ ভাইদেরকে ভালোবাসতে পারি এবং লোকেদের ক্ষমা করতে পারি ও তোমার পথ নির্দেশনায় একজন শান্তি স্থাপনকারী হতে পারি৷ আমি তোমার উপর নির্ভর করি, তুমি বিজয়ী৷

প্রশ্ন:

১০৩. কেন এবং কেমন করে পিতা আমাদের ভালোবাসেন?

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on July 25, 2012, at 09:32 AM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)