Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- John - 058 (Sin is bondage)
This page in: -- Arabic -- Armenian -- BENGALI -- Burmese -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- Hausa? -- Hindi -- Indonesian -- Kiswahili -- Kyrgyz -- Malayalam -- Peul -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish? -- Tamil -- Telugu -- Turkish -- Urdu -- Uyghur? -- Uzbek -- Vietnamese -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

যোহন - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলছে
যোহন বর্ণীত মসিহের নাজাতের বারতার সুসমাচার ওপর অধ্যয়ন
দ্বিতীয় খণ্ড - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলিতেছে (যোহন ৫:১ - ১১:৫৪)
সি - জেরুজালেমে ঈসা মসিহের শেষ যাত্রা (যোহন ৭:১ - ১১:৫৪) -- অন্ধকার ও নূরের পৃথককরণ
১. তাঁবুর মধ্যে উপাসনালয়ের ভোজে ঈসা মসিহের কথা (যোহন ৭:১ - ৮:৫৯)

ঘ) ঈসা মসিহ দুনিয়ার নুর (যোহন ৮:১২-২৯)


যোহন ৮:৩০-৩২
৩০. ঈসা মসিহ যখন এই সমস্ত কথা বলিতেছিলেন তখন অনেকেই তাঁহার ওপর ঈমান আনিল৷ ৩১. যে ইহুদিরা তাহাকে বিশ্বাস করিয়াছিল ঈসা মসিহ তাহাদের বলিলেন, 'আমার কথামতো যদি আপনারা চলেন তবে সত্যই আপনারা আমার উম্মত৷ ৩২. তাহা ছাড়া আপনারা সত্যকে জানিতে পারিবেন, আর সেই সত্যই আপনাদের মুক্ত করিবে৷'

ঈসা মসিহের বিনীত অথচ যে সাক্ষ্য মানুষের মনে দাগ কাটে তা অনেক শ্রোতাদেরকে প্রভাবিত করেছিল৷ তিনি যে খোদা থেকে এসেছেন সে ব্যাপারে তারা তার ওপর ঈমান আনতে অনুরাগী হয়েছিল৷ ঈসা মসিহ তার ওপর তাদের বিশ্বাসকে অনুভব করলো এবং তাদের মনোযোগকে গ্রহণ করলো, তিনি কেবলমাত্র তার সুসমাচারের ওপর বিশ্বাস আনার জন্য তাদেরকে আহ্বান করেননি, কিন্তু তার বাক্যের বিষয়ে চিন্তা করতে এবং তার সাথে অংশ গ্রহন করতে বলেছিলেন যেন তারা তার সামনে থাকেন, ঠিক যেমন দ্রাক্ষালতার শাখার মতোন যাতে করে তাদের অন্তরের মধ্যে কোনো বাধা ব্যতীতই রুহ প্রবাহিত হতে পারে; যাতে করে তারা তার ইচ্ছাকে বাস্তবিকভাবে সম্পন্ন করতে পারে৷ যে কেউ ঈসা মসিহের বাক্যকে পরিপূর্ণ করে সে সত্যকে উপলব্ধি করে৷ কারণ বিশ্বাস কেবলমাত্র একটি চিন্তা নয় কিন্তু বাস্তবতা যার মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের জীবনের কার্যাবলিতে অংশগ্রহণ করি৷

প্রথমতো খোদার সত্য হলো সকল কথাবার্তা যা অকৃত্রিম এবং জ্ঞানসম্পন্ন; দ্বিতীয়ত খোদাকে জানতে পিতা, পুত্র ও পাক-রুহের একাত্বতার প্রেম ও প্রচেষ্টার মধ্যে দিয়ে যেতে হবে৷ যেমন আমরা গভীরভাবে ঈসা মসিহের সাথে যুক্ত হই আমরা পবিত্র ত্রিত্বের মাধুর্যকে উপলব্ধি করি৷

খোদাকে জানা আমাদের জীবনকে রূপান্তরিত করে৷ আমরা এতেঠটা মাত্রায় খোদাকে জানি যে আমরা অপরকে ভালোবাসি৷ যে ভালোবাসে না সে খোদাকে জানে না৷ ঈসা মসিহের বাক্যের মধ্যে দিয়ে খোদাকে জানলে আমরা স্বার্থপরতা থেকে মুক্ত হই৷ অনুতাপের অথবা আইনের দায়িত্বের কথার মধ্য দিয়ে আমরা নিজেদেরকে পাপের দাসত্ব থেকে মুক্ত করতে পারি না; যা আমাদের ক্ষমা করবে তাহলো খোদার ভালোবাসাকে জানা, পুত্রের ক্ষমা গ্রহণ এবং আমাদের ভিতর রুহ প্রবেশের মধ্য দিয়ে৷ খোদার ভালোবাসা আমাদের স্বার্থপরতা ও অহংকারের শিকলগুলিকে ভাঙতে পারে৷

যোহন ৮:৩৩-৩৬
৩৩. ইহুদি নেতারা তখন ঈসা মসিহকে বলিলেন, 'আমরা ইব্রাহিমের বংশ, আমরা কখনো কাহার গোলাম হই নাই৷ তুমি কেমন করিয়া বলিতেছ যে, আমাদের মুক্ত করা হইবে?' ৩৪. ঈসা মসিহ তাহাদের এই উত্তর দিলেন, 'আমি সত্যই আপনাদের বলিতেছি, যাহারা পাপে পড়িয়া থাকে, তাহারা সকলে পাপের গোলাম৷ ৩৫. গোলাম চিরদিন বাড়িতে থাকে না, কিন্তু পুত্র চিরকাল থাকে৷ ৩৬. তাই খোদার পুত্র যদি আপনাদের মুক্ত করেন, তবে সত্যই আপনারা মুক্ত হইবেন৷

ইহুদিরা হতবুদ্ধ হয়েছিল; তাদের পূর্বপুরুষেরা মিশরে দুইশো বছর ধরে ফেরাউনের দাসত্বের ভিতর কাটিয়েছিল এবং তারা নিজেদেরকে মনে করতো খোদার শক্তির দ্বারা তারা মুক্ত হয়েছে, কারণ তিনি তাদেরকে দাসত্ব থেকে বের করে এনেছিলেন (যাত্রাপুস্তক ২০ : ২)৷ তাই ঈসা মসিহের বাক্য তাদেরকে বিক্ষুদ্ধ করেছিল যখন তিনি এটা আবিষ্কার করেছিলেন যে তারা মুক্ত হয়েছিল৷

যারা ঈসা মসিহের ওপর ঈমান আনতে শুরু করেছিল তাদের গর্বকে তিনি খর্ব করেছিলেন৷ তিনি তাদের দেখিয়েছিলেন যে তারা পাপের দাস এবং শয়তানের দ্বারা বন্দি৷ আমরা যদি আমাদের অর্থহীন দাসত্বকে উপলব্ধি করতে ব্যর্থ হই, আমরা মুক্তির জন্য আকাঙ্ক্ষিত হব না৷ যে কেউ নিজের সম্পর্কে জানে যে সে পাপ থেকে সরে আসতে অসমর্থ, সে নিজেকে রক্ষা করতে খোদার কাছে সাহায্য চাইবে৷ এখানে আমরা একটা কারণ দেখতে পাই কেন অধিকাংশ লোক ঈসা মসিহকে খোঁজে না; এটা হলো যে তারা নিজেদের সম্পর্কে চিন্তা করে যে তাদের মুক্তির প্রয়োজন নাই৷

ঈসা মসিহ জোরের সাথে ঘোষণা করেন, 'যে কেউ পাপ করে, সে পাপের গোলামে পরিণত হয়৷ অনেক যুবক লোকেরা তাদের জীবন শুরু করে মিথ্যা, কুড়েমি ও নগণ্যতার মধ্য দিয়ে৷ তারা পাপের সাথে হেলাফেলা করে চলতে থাকে এবং কল্পনায় পাপের মধ্যে বাস করতে থাকে; এবং পরিশেষে তা করতে সিদ্ধান্ত নেয় এবং প্রবঞ্চনার পথকে বেছে নেয়৷ তারা কিছু অনৈতিক কাজ করে এবং তার পুনরাবৃত্তি করে যতক্ষণ পর্যন্ত না এটা তাদের অভ্যাসে পরিণত হয়৷ যখন তারা এই নোংরামি এবং অধার্মিকতাকে অনুভব করে এবং তাদের বিবেক দ্বারা তিরস্কৃত হয়, তখন সময় পার হয়ে পড়ে৷ তারা অনিচ্ছা সত্ত্বেও একটি অপরাধ করতে তাড়িত হয়৷ এতে করে তারা ওই সময়কে দোষারোপ করে যখন তারা মন্দ চিন্তা করতে শুরু করেছিল৷ মানুষ মন্দ হয়ে পড়েছে, এমনকি যদিও তারা মুখোশের আড়ালে মিথ্যা ধার্মিকতাকে এবং কুত্‍সিত সত্যকে গোপন করে৷ ঈসা মসিহ ব্যতীত প্রতিটি মানুষ তার নিজের কামনার দাস৷ শয়তান তাদের স্নায়ু নিয়ে পুতুলের মতো খেলা করে যেমন ঝড় শুকনো পাতা নিয়ে তাই করে৷

এরপর খোদার পুত্র তার অতিউত্তম বাক্য উচ্চারিত করলেন, 'এখন আমি আপনাদের সাথে আছি এবং আপনাদের দাসত্বের বন্ধনের বিষয়ে জানি৷ আপনাদের মুক্ত করতে এবং আপনাদের পাপসমূহকে দূরীভূত করতে আমি সমর্থ এবং প্রস্তুত আছি৷ আমি এই দুনিয়ার ভাসাভাসা সংস্কার করতে আসি নাই, অথবা কঠোর আইনের মধ্য দিয়ে আপনাদেরকে শাষণ করতে আসি নাই৷ না, আমার উদ্দেশ্য হলো আপনাদেরকে পাপের ক্ষমতোা থেকে এবং মৃতু্যর শক্তি থেকে মুক্ত করা যে অধিকারগুলো শয়তান দাবি করে৷ আমি আপনাদেরকে নুতনভাবে সৃষ্টি এবং পুনরুজ্জীবিত করবো যাতে করে আপনার ভিতরে খোদার শক্তি পাপের প্রতিষেধক হিসেবে কাজ করতে পারে৷ নি:সন্দেহে, শয়তান হাজার উপায় আপনাদেরকে প্রলোভিত করবে৷ আপনারা হোঁচট খাবেন কিন্তু দাস হিসেবে নয় সন্তান হিসেবে যারা নুতন অধিকার পাবে৷'

'আপনারা চিরকালের জন্য মুক্তি পেয়েছেন যা আমার রক্ত দিয়ে পরিশোধ করা হয়েছে এবং পাপকে ক্রয় করা হয়েছে৷ খোদার কাছে আপনি বিশেষ কেউ৷ তিনি আপনাকে স্বাধীনতা প্রদান করেছেন কারণ আপনি মুক্ত সন্তান৷ পাপ থেকে মুক্ত করার পর আপনাকে আমি খোদার সহভাগিতার মধ্যে অর্পণ করছি, সেবার জন্য এবং স্বেচ্ছাকৃতভাবে ধন্যবাদ দেবার জন্য৷ আমি একজন উদ্ধারকারী যে আপনাকে অন্যায় শৃঙ্খল থেকে মুক্ত করে খোদার রাজ্যে ঢোকায়৷ আমি খোদার পুত্র, সকলকে মুক্ত করার কর্তৃত্ব আছে যারা আমার কন্ঠস্বর শোনে'৷

প্রার্থনা: প্রভু ঈসা মসিহ, আমরা তোমার এবাদত করি এবং প্রশংসা করি, কারণ তুমি সর্বশক্তিমান নাজাতদাতা যে আমাদেরকে চূড়ান্তভাবে শয়তানের অত্যাচার থেকে মুক্ত করেছে৷ তুমি আমাদের সকল অপরাধ ক্ষমা করেছ৷ তুমি আমাদেরকে পুরষ্কৃত করেছ যাতে করে আমরা ঘৃণা এবং তিক্ততার দাসত্বের মধ্যে পড়ে না থাকি, কিন্তু পুত্রের মতো মুক্ত এবং আনন্দের মধ্যে খোদার সেবা করতে পারি৷

প্রশ্ন:

৬২. কেমন করে আমরা সত্যিকারভাবে মুক্ত হতে পারি?

QUIZ - 3

প্রিয় পাঠক,
আমাদেরকে ১৯টির মধ্য থেকে ১৭টি প্রশ্নের জবাব পাঠিয়ে দিন৷ আমরা আপনাকে এই অধ্যায়ের পরিশিষ্ট পাঠাবো৷

৪৪. পাঁচ হাজার লোককে খাওয়ানোর রহস্য কী?
৪৫. কী কারণে ঈসা মসিহ লোকদের দ্বারা মুকুট পরা রাজা হতে অস্বীকার করেছিলেন?
৪৬. কেমন করে ঈসা মসিহ লোকদেরকে রুটির আকাঙ্ক্ষা থেকে তার ওপর ঈমান আনতে চালিত করেছিলেন?
৪৭. 'জীবনের রুটি' বলতে কি বুঝায়?
৪৮. কেমন ভাবে ঈসা মসিহ তার শ্রোতাদের বিড়বিড় করে কথা বলার উত্তর দিয়েছিলেন?
৪৯. কেন ঈসা মসিহ তার শ্রোতাদেরকে বলেছিলেন তার মাংস খেতে এবং তার রক্ত পান করতে?
৫০. কেমন করে জীবনদায়ক রুহ মসিহের দেহের সাথে যুক্ত হয়েছিল?
৫১. পিতরের সাক্ষ্যের গুঢ়রহস্য কী?
৫২. দুনিয়া কেন ঈসা মসিহকে ঘৃণা করে?
৫৩. কী প্রমাণ রয়েছে যে সুসমাচার খোদার কাছ থেকে এসেছে?
৫৪. কেন ঈসা মসিহ একমাত্র ব্যক্তি যিনি সত্য সত্যই খোদাকে জানেন?
৫৫. ঈসা মসিহ তার ভবিষ্যত্‍ সম্পর্কে কি বাণী করেছিলেন?
৫৬. কোন অধিকার নিয়ে ঈসা মসিহ এ ঘোষণা দিয়েছিলেন, 'যে কেউ তৃষ্ণার্ত তাকে আমার কাছে এসে জীবন জল পান করতে দাও'৷
৫৭. ঈমামেরা ও ফরিশিরা কেন সাধারণ লোকদেরকে অবজ্ঞা করতো?
৫৮. কেন ব্যভিচারি মহিলার বিরুদ্ধে অভিযোগকারীরা ঈসা মসিহের কাছ থেকে সরে গেলো?
৫৯. দুনিয়ার নূর ঈসা মসিহ নিজের সম্পর্কে সাক্ষ্য কেমনভাবে বেহেশতি পিতার জ্ঞানের সাথে সম্পর্কিত?
৬০. সেই ব্যক্তির ওপর ঈমান আন যিনি নিজের সম্পর্কে বলেছিলেন 'আমিই সেই' বলতে কী বুঝায়?
৬১. কীভাবে ঈসা মসিহ পবিত্র ত্রিত্বের মধ্যে নিজের স্থিরতাকে ঘোষণা করেন?
৬২. সত্যিকারভাবে আমরা কিভাবে মুক্ত হতে পারি?

আপনারা নাম এবং পূর্ণঠিকানা স্পষ্ট করে শুধুমাত্র খামের ওপর নয় কিন্তু প্রশ্নপত্রের ওপর লিখতে ভুলবেন না৷ নিচের ঠিকায় এটাকে পাঠিয়ে দিন৷

Waters of life
P.O. Box 600 513
70305 Strttgart,
Germany

MJWT
G.P.O Box No. 3507
Dhaka-1000
BANGLADESH

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on June 13, 2012, at 12:28 PM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)