Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- John - 057 (Jesus the light of the world)
This page in: -- Arabic -- Armenian -- BENGALI -- Burmese -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- Hausa? -- Hindi -- Indonesian -- Kiswahili -- Kyrgyz -- Malayalam -- Peul -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish? -- Tamil -- Telugu -- Turkish -- Urdu -- Uyghur? -- Uzbek -- Vietnamese -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

যোহন - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলছে
যোহন বর্ণীত মসিহের নাজাতের বারতার সুসমাচার ওপর অধ্যয়ন
দ্বিতীয় খণ্ড - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলিতেছে (যোহন ৫:১ - ১১:৫৪)
সি - জেরুজালেমে ঈসা মসিহের শেষ যাত্রা (যোহন ৭:১ - ১১:৫৪) -- অন্ধকার ও নূরের পৃথককরণ
১. তাঁবুর মধ্যে উপাসনালয়ের ভোজে ঈসা মসিহের কথা (যোহন ৭:১ - ৮:৫৯)

ঘ) ঈসা মসিহ দুনিয়ার নুর (যোহন ৮:১২-২৯)


যোহন ৮:২৫-২৭
২৫. ইহাতে নেতারা ঈসা মসিহকে জিজ্ঞাসা করিলেন, 'তুমি কে?' ঈসা মসিহ তাহাদের বলিলেন, 'প্রথম হইতে আমি আপনাদের যাহা বলিতেছি আমি তাহাই৷ ২৬. আপনার সম্বন্ধে বলিবার আর বিচার করিয়া দেখিবার আমার অনেক কিছুই আছে৷ কিন্তু যিনি আমাকে পাঠাইয়াছেন তাঁহার মধ্যে মিথ্যা নাই; আমি তাঁহার নিকট যাহা শুনিয়াছি তাহাই মানুষকে বলি৷' ২৭. তাহারা বুঝিলেন না, ঈসা মসিহ পিতার বিষয়েই তাহাদের নিকট বলিতেছিলেন৷

নিজের খোদাত্বের ব্যাপারে মসিহের দৃঢ় উক্তি সত্ত্বেও, ইহুদিরা তাকে জিজ্ঞাসা করে যেতে লাগলো, 'তুমি কে? আমাদেরকে একটা ঈঙ্গিত দাও; এবং বিষয়টিকে এমনভাবে পরিষ্কার করে বল যাতে করে আমরা উপলব্ধি করতে পারি!' অথচ ঠিক তাদের প্রশ্নের আগেই ইতিমধ্যেই তিনি নিজেকে যতটা সম্ভব পরিষ্কারভাবে প্রকাশিত করেছিলেন৷

ঈসা মসিহ উত্তরে বলেছিলেন, 'প্রথম থেকেই আমি সত্য খোদা; অথচ তোমরা আমার বাক্যগুলিকে বুঝতে ব্যর্থ হয়েছ৷ তোমাদের হৃদয়ে আমার রুহ একটুও জায়গা পায়নি, আমার নাম এবং গুণসংক্রান্ত আমার প্রকাশিত বাক্যে তোমাদের কোনো কাজে আসবে না৷ আমি রক্ত মাংসে গঠিত খোদার বাক্য৷ কিন্তু তোমরা আমার কথা কোনো না এবং আমােেক বোঝ না, কারণ এই নিচের দুনিয়া থেকে এসেছ, খোদা থেকে নয়৷ তাই তোমরা আমার রুহকে তোমাদের ভিতরে একটি নুতন মনোযোগ সৃষ্টি করতে দেবে না৷ আমি তোমাদেরকে বারংবার বলেছি তাতে তেমন কিছু লাভ হয়নি, কারণ তোমরা কঠিন হৃদয়ধারী৷ এই কারণে আমার বাক্য তোমাদের বিচার করবে, এমন কি যদিও আমি তোমাদের ভালোবাসি এবং নিজেকে তোমাদের কাছে প্রকাশ করেছি৷ তোমাদের দুই একজন হয়তো আমার মর্যাদা বা মহিমাকে উপলব্ধি করতে শুরু করবে৷ আমি তোমাদের রক্ষা এবং পুনরুজ্জীবিত করতে চাই৷ খোদা হলেন সত্য, যেমন আমি নিজে৷ কিন্তু সেই সত্য তোমাদেরকে ধ্বংস করবে, যেহেতু তোমরা তোমাদের হৃদয়ে রুহকে নেমে আসতে প্রত্যাখ্যান করেছ৷' তখনো ইহুদিরা এইসব প্রকাশিত বাক্যের যা এতোদিন লকায়িত অর্থ উপলব্ধি করে নাই অথবা তার পিতার সাথে একাত্মতার বিষয়টি নির্ণয় করতে পারেনি৷ তারা তার বাক্য শুনেছিল কিন্তু কিছুই বোঝে নাই, কারণ তারা তার ওপর ঈমান আনে নাই৷ কেবল তার ওপর বিশ্বাসই তার স্পষ্ট সত্যকে আমাদের মনের কাছে প্রকাশিত করে৷

যোহন ৮:২৮-২৯
২৮. এই জন্য ঈসা মসিহ বলিলেন, 'যখন আপনারা মনুষ্যপুত্রকে উঁচুতে তুলিবেন তখন বুঝিতে পারিবেন যে, আমিই তিনি৷ আর ইহাও বুঝিতে পারিবেন যে, আমি নিজ হইতে কোনো কিছুই করি না, বরং পিতা আমাকে যে শিক্ষা দিয়াছেন আমি সেই সমস্তকথাই বলি৷ ২৯. যিনি আমাকে পাঠাইয়াছেন তিনিই আমার সঙ্গে আছেন৷ তিনি আমাকে পাঠাইয়াছেন তিনি আমাকে একা ছাড়িয়া দেন নাই, কারণ যে কাজে তিনি সন্তুষ্ট হন আমি সব সময় সেই কাজই করি৷'

ঈসা মসিহ জানতেন যে তার শত্রুরা এমন কি তার সাহাবিরাও তার বিষয়ে সত্যকে উপলব্ধি করতে ব্যর্থ হয়েছিল৷ কারণ তখনও পর্যন্ত পাক-রুহ বর্ষিত হয় নাই৷ কিন্তু ঈসা মসিহ দৃঢ়প্রত্যয়ী ছিলেন যে তার সলীবে পাপের কোরবানি পৃথিবীর পাপকে দূরীভূত করবে৷ তিনি উপরে যখন তার পিতার কাছে উঠে গেলেন তখন থেকে পাক-রুহ নেমে আসে৷ এতে করে ইহুদি এবং অইহুদিদের মনে তার সম্পর্কে তাদের জ্ঞান বজ্রের মতো আঘাত করতো৷ পাক-রুহের কাজের মধ্যস্থতা ছাড়া ঈসা মসিহের বেহেশতি বৈশিষ্টকে উপলব্ধি করা যায় না৷ যুক্তিসংগত কারণ খুব একটা কাজে আসবে না৷ কেবল মাত্র পুনর্জন্মই স্পষ্টভাবে বিশ্বাসের সৃষ্টি করে, ঠিক ঈসা মসিহের নম্রতার ওপর দৃঢ় বিশ্বাস দ্বিতীয় জন্মকে সৃষ্টি করে৷

ঈসা মসিহ একথা বলেননি যে তিনি সম্পূর্ণ স্বাধীন খোদাবন্দ, কিন্তু একই সময় ঘোষণা করেছিলেন পিতার সাথে তার একাত্মতার মূল বিষয়টি এবং তার পিতা ব্যতীত কাজ করার অক্ষমতাকে অধিকন্তু তার নিজের ইচ্ছায় তিনি কিছু করেন না৷ পিতা তার মধ্যে কাজ করেন৷ তার অবনমিতো অবস্থার মাত্রা দেখায় যে তাকে 'খোদার প্রেরিত হিসেবে গ্রহণ করে৷ এমন কি যদিও একই বাক্যে তিনি নিজেকে ইতিহাসের প্রভু হিসেবে প্রকাশ করেছেন৷

আমাদের পিতা সহজসাধ্য নন, কিন্তু পাক-রুহ তাকে নমনীয় করেছে৷ যোহন এইভাবে এই সকল অতি উচ্চ অর্থকে লিপিবদ্ধ করেছন, ঈসা মসিহ ত্রিত্বের একাত্বতার সত্যকে বিস্ময়ের সাথে নিজেকে অংশীদার করেছেন৷ তারপর তিনি বলেছেন, 'পিতা সবসময়ই আমার সাথে ছিলেন, এমন কি এখনো আছেন এবং এক মুহূর্তের জন্যও আমাকে ছেড়ে যাননি৷ সেইভাবে পুত্রও কখনো তার বেহেশতি পিতাকে ছেড়ে যাননি অথবা তার বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেননি এবং তার পিতার সন্তুষ্টি অনুযায়ী আজ্ঞানুবতর্ী ছিল৷ তিনি মানুষ হয়ে বেহেশত থেকে নেমে এসেছিলেন যা তার পিতার ইচ্ছানুযায়ী হয়েছিল'৷ কি মনোরম বক্তব্য এটি, সব সময় আমি তাই-ই করি যা আমার পিতাকে সন্তুষ্ট করে৷ পুত্র ব্যতীত এই কথাগুলি অন্য কেউ উচ্চারিত করতে পারে না, সব সময় পিতার ইচ্ছানুযায়ী পাক-রুহের মধ্যে বাস করি৷ ঈসা মসিহ আইনকে পরিপূর্ণ করেছেন৷ অধিকন্তু, তিনি নিজেই ছিলেন ইঞ্জিলের নিখুঁত আইন৷ তবুও ইহুদিরা তাকে খোদা নিন্দুক হিসেবে অ্যাখ্যায়িত করেছিল, যা আইন বিরুদ্ধ ছিল এবং লোকদেরকে বিপথে পরিচালিত করছিল অথচ তিনি একাই আইন মেনে চলতেন৷

আপনি কি ঈসা মসিহের নিজের সম্পর্কে ঘোষণার ব্যাপারে রুহের কন্ঠস্বর শুনেছেন? আপনি তার মর্যাদা, অবনমিতো অবস্থা, তার স্বাধীনতা এবং পিতার প্রতি বশ্যতা স্বীকারকে অনুভব করেন? এইভাবে তিনি আপনাকে তার ভালোবাসার সহভাগীতার মধ্যে বশ্যতা ও স্বাধীনতার মধ্যে টানতে চান৷ তিনি আপনাকে তার উপস্থিতিতে মুক্তি ও সেবার মধ্যে চালিত করতে চান৷ তিনি আপনার শিক্ষক হবেন এবং তাকে ব্যতীত আপনি কিছুই করবেন না এবং সবসময় তাকে সন্তুষ্ট করবেন৷

প্রার্থনা: প্রভু ঈসা মসিহ, আমার অবাধ্যতা, প্রবঞ্চনা এবং অপরাধের জন্য আমি লজ্জাবোধ করি৷ আমার অপরাধসমূহকে ক্ষমা করুন৷ আমাকে পবিত্র করুন যাতে করে আপনার পাক-রুহের পরিচালনায় নিজেকে সম্পূর্ণরূপে নিয়োজত করতে পারি৷ আমার পথপ্রদর্শক এবং শিক্ষক হন, আমার হৃদয় এবং মনকে আপনার শাশ্বত ভালোবাসার কাছে উন্মুক্ত করুন৷

প্রশ্ন:

৬১. কীভাবে ঈসা মসিহ পবিত্র ত্রিত্বের মধ্যে তার বিশ্বস্ততাকে ঘোষণা করেছিলেন?

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on June 13, 2012, at 12:15 PM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)