Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- Romans - 046 (God’s Plan of Salvation)
This page in: -- Afrikaans -- Arabic -- Armenian -- Azeri -- BENGALI -- Bulgarian -- Cebuano -- Chinese -- English -- French -- Hebrew -- Hindi -- Indonesian -- Malayalam -- Polish -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish? -- Turkish -- Urdu? -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

রোমীয়দের - প্রভুই আমাদের ধার্মিকতা
রোমীয়দের কাছে হযরত পৌলের লেখা পত্রের ওপর পর্যালোচনা
প্রথম খন্ড - খোদার ধার্মিকতা সকল পাপীকে দোষী সাব্যস্থ করে, আর মসিহের ওপর বিশ্বাসিদের ন্যায়বান ও আলাদা করে (রোমীয় ১:১৮ - ৮:৩৯)
ঙ - আমাদের বিশ্বাস চিরকালের জন্য স্থায়ী (রোমীয় ৮:২৮-৩০)

১. খোদার নাজাতদানের পরিকল্পনা দাবি জানায় আমাদের জন্য আগত গৌরব (রোমীয় ৮:২৮-৩০)


রোমীয় ৮:২৮-২৯
আমরা জানি যারা আল্লাহকে মহব্বত করে, অর্থাত্‍ আল্লাহ নিজের উদ্দেশ্যমত যাদের ডেকেছেন তাদের ভালোর জন্য সব কিছুই একসঙ্গে কাজ কারে যাচ্ছে৷ ২৯. আল্লাহ যাদের আগেই বাছাই করেছিলেন তাদের তিনি তাঁর পুত্রের মত হবার জন্য আগেই ঠিক করেও রেখেছিলেন, যেন সেই পুত্র অনেক ভাইদের মধ্যে প্রধান হন৷

যে কেউ খোদার পরিচয় জানে সে অনুভব করে থাকে যে তিনি সর্বশক্তিমান৷ তাঁর ইচ্ছা ও অজান্তে বিশ্বের কিছুই ঘটতে পারে না৷ তিনিই সর্বশক্তিমান৷ যাহোক, আমরা ভাগ্যে বিশ্বাস করি না, যেমন অনেক ধর্ম বিশ্বাস করে, তার কারণ হলো আমরা জানি মহান খোদা হলেন আমাদের পিতা করুনানিধি, যিনি সদা-সর্বদা আমাদের যত্ন নিয়ে থাকেন, কখনোই ক্ষতি করেন না, ঘৃণা করেন না অথবা করেন না আমাদের পরিত্যাগ, সে করণেই তাকে অনুরোধ জানাই তাঁর প্রেমে আমাদের আস্থা অধিক পরিমান বাড়িয়ে দিতে, যেন আমাদের বিশ্বাস সমস্যা অত্যাচার তাড়নার মুখে কখনোই ফসকে বা নরবড়ে হয়ে না পড়ে৷ আমাদের প্রতি খোদার মহব্বতের ওপর আস্থা সুনিশ্চিত করার জন্য পৌল ধারাবাহিকভাবে নিশ্চয়তার পত্র লিখেছেন আমাদের ব্যক্তিগত নাজাতের ওপর যার ফলে আমরা না হবো সন্দিহান না হবো বিচলিত৷

আপনার জন্মের পূর্বেই খোদা আপনাকে বাছাই করেছেন, কেননা, তাঁর হৃদয়ে আপনাকে নিয়ে এক বিশেষ চিন্তা আছে৷ বিশ্বের নির্মানের পূর্বেই তিনি আপনাকে জানতেন৷ তাই তিনি আপনার অন্তরের অন্তস্থল, নিভৃতাবাস সবকিছু আপনার চরিত্র ও চাওয়া পাওয়া সবকিছুই জানেন৷ আপনি যতোটা মনে করেন আপনার সাথে খোদার সম্পর্কের বিষয়, তার চেয়ে অনেক অনেকগুন বেশি গভীর সম্পর্ক রাখেন খোদা আপনার সাথে৷ আপনি অপরিচিত কেউ নন তার কাছে বরং সুপরিচিত৷ তিনি আপনার জন্য অপেক্ষারত, যেমন পিতা তাঁর হারিয়ে যাওয়া সন্তানের ফিরে আসার অপেক্ষাতে থাকেন সদা সর্বদা৷ আপনি যতোটা খোদার জন্য ব্যস্ত তার চেয়ে তিনি আপনার জন্য অধিক ব্যস্ত, চিন্তিত৷

অতীতের সকল যুগের পূর্বেই অনন্তকালীন খোদা আপনাকে জানেন৷ আপনার ভবিস্যত, তিনি কতকগুলো গৌরবোজ্জ্বল লক্ষ রেখেছেনে আপনার সামনে পূর্ব থেকে, তিনি আপনার জন্য স্থির করে রেখেছেন তার ঐশি পরিকল্পনা অনুযায়ী, কেবলমাত্র মসিহের মধ্য দিয়ে আপনি যেন তার পুত্রের সম্পর্কে উনি্নত হতে পারেন৷ মসিহ আপনার পাপভার বহন করেছেন, করেছেন আপনাকে মুক্তপাপ, আর পাপময় দেহ সলিবের মাধ্যমে জয় করেছেন, কেবলমাত্র মসিহের মাধ্যমে আপনার মনোনয়ন হয়েছে প্রতিষ্ঠিত৷ যে কেউ দৃঢ়ভাবে পুত্রের পুনরুত্থানের বিষয়টিকে আকড়ে ধরে সে কখনোই বিচলিত হবে না, কেননা পবিত্র সত্ত্বা হলেন বিশ্বাসযোগ্য৷ তাই স্বীকার করুন, খোদা আপনার জীবনেও একটি লক্ষ্য স্থির করে রেখেছেন, আর পূর্ব থেকেই ঠিক করে রেখেছেন, আপনি মসিহের সুরতে রূপান্তরিত হবেন, যিনি বর্তমানে খোদার ডান দিকে আছেন সমাসীন৷ খোদা চান না, পুত্রদের মধ্যে ভিন্ন ভিন্ন পদমর্যাদা থাকুক, কিন্তু তিনি সকলকে পরিচালনা করে চলছেন পরিপূর্ণ খাঁটি হতে, বিনম্র ও সেবাকারী হতে, নিজেকে অস্বীকার করে মসিহ যেমনভাবে এ পৃথিবীতে চলেছেন তেমনি আপনিও যেন চলতে পারেন৷

রোমীয় ৮:৩০
যাদের তিনি আগেই ঠিক করে রেখেছিলেন তাদের তিনি ডাকও দিলেন; যাদের ডাক দিলেন তাদের তিনি ধার্মিক বলে গ্রহণও করলেন, যাদের ধার্মিক বলে গ্রহণ করলেন তাদের তিনি নিজের মহিমাও দান করলেন৷

খোদা তার প্রেম মূর্ত করলেন এবং ব্যক্তিগতভাবে আপনার সাথে কথা বললেন৷

আপনি কি হৃদয়ে গভীরে তাঁর আওয়াজ শুনতে পেয়েছেন? তাঁর আহ্বান কি আপনার কঠিন হৃদয়ের গভীরে নিভৃত স্থানে দাগ কেটেছে? স্মরণে রাখবেন, খোদা আপনাকে বাছাই করেছেন এমন সময় যখন আপনি ছিলেন গুনাহগার, আর তিনি পূর্ব থেকেই আপনাকে তার সন্তান হিসেবে বাছাই করে রেখেছেন৷ তিনি চেয়েছেন আপনাকে নবীন করে গড়ে তুলতে, যে কিনা ছিল মৃত, অহমিকা ও অভিলাষে, যেন আপনি পবিত্রতার আলোতে হতে পারেন আলোকিত, সংযমি, সত্যবাদি, এবং কথা কাজে সরল৷ আপনার মধ্যে এমন কোনো শক্তি নেই যার ফলে আপনি পবিত্র জীবন যাপন করতে পারেন, খোদার কালাম ব্যতিত আপনি সম্পূর্ন অচল৷ খোদার কালাম নিয়ত আপনার মধ্যে কাজ করে চলছে৷ তাই পাক-কালাম কিতাবুল মোকাদ্দস নিয়মিত অধ্যয়ন করুন, কেননা ঐসকল কালো অক্ষরের মধ্য দিয়ে খোদা প্রত্যক্ষভাবে আপনার সাথে কথা বলে চলছেন৷

খোদা বন্ধুসুলভ পরামর্শে মহাখুশি, আপনার নাজাতের ভিত্তিমূল হলো, শয়তনের অভিযোগ সত্ত্বেও যা কোনো অবস্থাতেও নাড়ানো চলে না, আমাদের ধার্মিক খোদা আপনাকে ধার্মিক হিসেবে গণ্য করেছেন পাপের কাফফারা সাধনকারী তাঁর পুত্রের সলিবে মৃতু্যর মাধ্যমে, আর আপনার গোটা পাপ সাথে সাথে মুছে ফেলেছেন৷ মসিহের নির্দোষিতায় আপনি হয়ে গেছেন নির্দোষ আর আপনাকে পবিত্র বলে গণ্য করা হচ্ছে তাঁর নাজাতদানকারী স্বীয় প্রাণের কোরবানির বিনিময়ে৷ তাই কখন ধন্যবাদ জ্ঞাপন করবেন তার প্রেম যা তিনি আপনার ওপর অভিষেক করেছেন? আপনি কখন তাঁর কথায় ও পরিচালনায় বিশ্বাস স্থাপন করবেন? আর কখন তাঁর বিশ্বস্ত দয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাবেন?

খোদা তাঁর পরাক্রমে স্থির করে রেখেছেন আরও অনেক কিছু৷ তিনি পাকরূহের উপাদন আপনাকে দান করেছেন আপনার মধ্যে তাঁর অনন্ত জীবন দান করার নিশ্চয়তা স্বরূপ৷ তাই খোদার মৌল সত্ত্বার মহিমা আপনার মধ্যে বর্তমানে শুপ্ত আকারে রয়েছে বিরাজমান৷ মসিহ যখন বিশ্বাসীদের চোখেই দৃষ্ট হচ্ছে, তদ্রুপ তার প্রেম, সত্য আর ধৌর্য আপনার মধ্যে রয়েছে কর্মরত৷ পাকরূহ অর্থাত্‍ খোদার রূহ নিজেই আপনার মধ্যে রুহানি ফসল তাঁর ঐশি গুনাবলিসহ উত্‍পন্ন করে থাকে যদি নাজাতদাতার মধ্যে বিশ্বাসে জীবন যাপন করে চলেন৷ পৌল এ কথা বলেন নাই যে খোদা ভবিষ্যতে আপনাকে গৌরবান্বিত করবেন, কিন্তু বিশ্বাসে তিনি স্বীকার করেছেন যে, তিনি ইতোমধ্যে আপনার মধ্য দিয়ে হয়েছেন মহিমান্বিত৷ পৌল সম্পূর্ন সুনিশ্চিত ছিলেন যে মসিহই হলেন বিশ্বাসে পূর্ণতাদাতা ও মালিক৷ তাই যিনি আপনার আত্মায় নাজাত দিয়েছেন তিনি বিশ্বস্ত৷ তিনি আপনাকে শিক্ষা দেন, শক্তি সঞ্চার করেন আর তাঁর নিজের কল্যাণের জন্যই করেন খাঁটি৷

আপনার জীবনে কি কোনো সমস্যা আছে? আপনি কি ক্ষুধার্ত অথবা রুগ্ন? আপনি কি চাকুরি খুঁজে ফিরছেন? শিক্ষালয় থেকে আপনি কি ব্যর্থ হয়েছেন? এসকল বিষয়গুলো খোদার কাছে গুরুত্বহীন, কেননা খোদা নিজেই রয়েছেন আপনার সাথে৷ তিনি আপনাকে মহব্বত করেন, আপনার যত্ন নিয়ে ফেরেন, আপনাকে রক্ষা করেন চোখের মনি তুল্য৷ তিনি আপনাকে ভুলে যান না, কিন্তু তাঁর পরিকল্পনা পূর্ণ বাস্তবায়ন করেন৷ পবিত্র সত্ত্বা আপনাকে বাছাই করেছেন আপনাকে পোষ্যপুত্র হিসেবে গ্রহণ করার জন্য৷ তাই নিজেকে অস্বীকার করুন, নিজের সলিব নিজ স্বন্ধে তুলে নিন, খোদার পুত্রকে অনুসরণ করুন, সলিব থেকে কবর পর্যন্ত, তখন হবে গৌরব, সবকিছু একত্রে কাজ করে থাকে তাদের কল্যাণে যারা খোদাকে মহব্বত করে৷ যিনি আপনাকে প্রথমে ভালোবেসেছেন তাকে কি আপনি মহব্বত করেন?

প্রার্থনা: হে পবিত্র খোদা, একের মধ্যে ত্রয়ী সত্ত্বা, আমরা আপনার আরাধন করি, কেননা আপনি আমাদের বাছাই করেছেন, প্রাচীনকাল থেকে আমাদের জানেন, আর আমাদের পূর্ব থেকে বাছাই করে রেখেছেন মসিহের মধ্য দিয়ে যেন মসিহের প্রেমের গৌরব বহন করতে পারি৷ আমাদের এমন কি পরিচয় রয়েছে যে তুমি আমাদের বাছাই করো? আমাদের পাপাচার ক্ষমা করো, আমাদের কান খুলে দাও যেন পাক-কালামের মধ্য দিয়ে তোমার আহ্বান শুনতে পারি৷ মসিহের রক্তে অর্থাত্‍ তোমার পুত্রের রক্তে আমাদের যে ধার্মিক করেছেন তা যেন বিশ্বাসে গ্রহণ করতে পারি আর তোমার বিশ্বস্ত প্রেমের জন্য ধন্যবাদ জ্ঞাত করি৷ আমরা তোমার পরিচালনায় বিশ্বাস করি, আর তোমাকে অনুরোধ জানাই আমাদের নিশ্চয়তা দাও মন্দ-জামানায় আমরা যেন কোনোভাবে তোমার থেকে বিচলিত না হই৷ বরং তোমার পাকরূহের বসতি যে আমাদের হৃদয়ে হয়েছে প্রতিষ্ঠিত, সে ব্যাপারে যেন হতে পারি নিশ্চিত৷ আর যে মহিমা আমরা পাব তা যে অবশ্যই ঘটবে তাও যেন স্থিরভাবে বিশ্বাস করতে পারি৷

প্রশ্ন:

৫০. যারা খোদাকে বিশ্বাস করে ভালোমন্দ সবকিছু তাদের কল্যাণে কেন ঘটে থাকে?

আমরা জানি যারা আল্লাহকে মহব্বত করে, অর্থাত্‍ আল্লাহ নিজের উদ্দেশ্যমত
যাদের ডেকেছেন তাদের ভালোর জন্য সব কিছুই একসঙ্গে কাজ কারে যাচ্ছে৷

(রোমীয় ৮:২৮)

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on February 25, 2014, at 01:25 PM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)