Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- Romans - 019 (Man is Saved not by Knowledge)
This page in: -- Afrikaans -- Arabic -- Armenian -- Azeri -- BENGALI -- Bulgarian -- Cebuano -- Chinese -- English -- French -- Hebrew -- Hindi -- Indonesian -- Malayalam -- Polish -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish -- Turkish -- Urdu? -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

রোমীয়দের - প্রভুই আমাদের ধার্মিকতা
রোমীয়দের কাছে হযরত পৌলের লেখা পত্রের ওপর পর্যালোচনা
প্রথম খন্ড - খোদার ধার্মিকতা সকল পাপীকে দোষী সাব্যস্থ করে, আর মসিহের ওপর বিশ্বাসিদের ন্যায়বান ও আলাদা করে (রোমীয় ১:১৮ - ৮:৩৯)
ক - গোটা বিশ্ব দুষ্টচক্রের প্রভাবে পড়ে আছে, হচ্ছে পরিচালিত, খোদা তাঁর ধার্মিকতার আলোকে তাদের বিচার করবেন (রোমীয় ১:১৮ - ৩:২০)
২. ইহুদিদেও বিরম্নদ্ধে খোদার গজব প্রকাশ পেল (রোমীয় ২:১ - ৩:২০)

গ) জ্ঞানের দ্বারা নয় মানুষ রক্ষা পায় কাজের ফলে (রোমীয় ২:১৭-২৪)


রোমীয় ২:১৭-২৪
১৭ তুমি নিজেকে ইহুদি বলে থাক, তাই না? তুমি মূসার শরীয়তের ওপর ভরসা কর এবং নিজে আল্লাহর বান্দা বলে গর্ববোধ কর৷ ১৮ আল্লাহ কি চান তা তুমি জান এবং যা ভালো তা মেনে নাও, কারণ শরীয়ত থেকে তুমি সেই শিক্ষাই লাভ করেছো৷ ১৯ তুমি মনে কর তুমি অন্ধদের পথ দেখাচ্ছ৷ তুমি ভাব, যারা অন্ধকারে আছে তাদের কাছে তুমি নূরের মত৷ ২০ তোমার ধারণা যারা বিবেচনাহীন তাদের তুমি সংশোধন করে থাক ও যারা শরীয়তের বিষয়ে শিক্ষা পায় নি তাদের তুমি শিক্ষা দিয়ে থাক৷ শরীয়তের মধ্যে জ্ঞান ও সত্য আছে বলেই তোমার এই সব ধারণা আছে৷ ২১ খুব ভালো, তুমি যখন অন্যদের শিক্ষা দিয়ে থাক তখন নিজেকেও শিক্ষা দাও না কেন? তুমি তবলিগ কর, 'চুরি কোরো না,' কিন্তু তুমি নিজেই কি চুরি করছ না? তুমি তো মুর্তি ঘৃণা কর, কিন্তু তুমি নিজেই কি চুরি করছ না? ২২ তুমি বলে থাক, 'জেনা করো না,' কিন্তু তুমি নিজেই কি জেনা করছ না? তুমি তো মুর্তি ঘৃণা কর, কিন্তু তুমি কি নিজেই মুর্তির মন্দিরে গিয়ে চুরি করছ না? ২৩ শরীয়ত নিয়ে তুমি গর্ববোধ কর, কিন্তু তুমি নিজেই কি শরীয়ত অমান্য করে আল্লাহকে অসম্মান করছ না? ২৪ পাক-কিতাবে এই কথা লেখা আছে, 'তোমাদেরই জন্য অ-ইহুদিরা আল্লাহর নামের বিরুদ্ধে কুফরী করে৷
'

ইব্রাহীমের বংশধরদের খোদা বিশ্বাস করে শরীয়ত প্রদান করেছেন, যা খোদার মহত্ম, গৌরব ও পবিত্রতা প্রমাণ করে৷ ইহুদিগণ শরীয়তের মর্ম বুঝতে পেরেছিলেন৷ তারা এর ওপর নির্ভর করেছে, আর এ সুযোগ লাভ করে তারা আনন্দে ফেটে পড়েছে, মনে করেছে শরীয়ত পাওয়ার ফলেই তারা বেহেশতে প্রবেশ লাভ করতে পারবে, অথচ, বাস্তবে শরীয়ত অপব্যবহার করার জন্য আশির্বাদের পরিবর্তে খোদার গজবের ও দোষের অধীনে হলো পতিত৷

পৌল ভালো স্বভাব ও খারাপ স্বভাবের সংখ্যা গণনা করেছেন, যা ইহুদিদের চরিত্রে ধরা পড়েছে৷ প্রান্তরে ঐশিপ্রত্যাদেশ প্রদানের মাধ্যমে তারা পেল শান্তি, নির্ভরতা ও গর্ব, কারণ তারা খোদার পরিচয় এবং তাঁর সদেচ্ছা জানতে পেরেছে৷ জীবনের সর্বোত্তম পথ তারা বুঝতে পেরেছে, আর জাতির জন্য হয়েছে আলো স্বরূপ৷

অন্যদিকে, পৌল নিশ্চয়তার সাথে তাদের বুঝাতে পারলেন যে শরীয়তের কোনো ক্ষমতাই নেই মানুষকে পরিবর্তন করে দেবার৷ এটা সত্য যে, এর দ্বারা তারা বুঝতে পেরেছে, তাদের কি কি করণীয়, কিন্তু তারা ওগুলো অর্থাত্‍ ঐসকল ফরজ পালন করে নি৷ তারা খোদার কুদরতের পরিচয় জেনেছে বটে, তবে তারা সেই পথে চলে নি? অনেকেই বাহ্যত খোদা ভক্তির চূড়ান্ত পর্যায়ে পৌছে লৌহ কঠিন শপথ নিয়েছে৷ যাহোক, প্রকৃতার্থে খোদার ইচ্ছা তাদের হৃদয়ের মধ্যে প্রবাহিত হয় নি৷

হয়ত তারা বাস্তবে চুরি করে নি, কিন্তু তাদের চোখ মোহে অন্ধ হয়ে পড়েছিল৷ হয়ত তারা যেনা করে নি সাধারণের মতো, কিন্তু তাদের হৃদয় অসুচি চিন্তা-চেতনায় থাকতো পরিপূর্ণ৷ তারা খোদার শরীয়ত হাজার বার ভঙ্গ করেছে৷ অধিকন্তু, পৌল অভিজ্ঞা অর্জন করেছেন, আসলে তাদের হৃদয়ে প্রেম বলতে কিছুই ছিল না বা ঘাটতি ছিল যথেষ্ট পরিমানে৷ তারা তাদের কৃত পাপের দ্বারা খোদাকে অমান্য করেছে, আর তাদের পদস্খলনের কারণে অন্যান্য জাতি খোদার নামের নিন্দা করার সুযোগ পেয়েছে৷

পৌল ইহুদি বংশোদ্ভুত মসিহি, তিনি লিখেছেন, বিশালতার প্রবঞ্চনা ব্যতিরেকে, সকল উত্তম সম্পদ হলো তার লোকদের৷ এ সাক্ষ্যের দ্বারা তিনি তার অধিকার ও ক্ষমতা প্রকাশ করেছেন জাতির পাপ ও কেলেঙ্কারি প্রকাশ করে৷ তাদের ধার্মিকতা বলতে অবশিষ্ট কিছুই নেই কেননা তারা মারাত্মক পাপ-অপরাধের সাথে যুক্ত, বিনষ্ট৷ তাদের মন্দ আচরণের কারণে খোদার নাম হয়ে পড়েছে কলঙ্কিত, তাই জাতি ও গোষ্টির বিরুদ্ধে এর চেয়ে অধিক দুর্ণাম আর কি থাকতে পারে৷ তাদের আসলে ডাকা হয়েছিল জাতিকে শরীয়তের আলোতে আলোকিত করার জন্য, অথচ তারা সেই মৌলিক দায়িত্ব পালন করে নি, উপরন্তু করেছে বিপরীত কাজ৷ পৌলের মতো সাহসি কোনো স্বাক্ষী যদি বর্তমানে খুঁজে পাওয়া যেতো, যে আমাদের অধিকার অস্বীকার করে না, কিন্তু মেকি ধার্মিকতার মুখোস সমাজের মুখ তেকে খুলে দেয়, তবে হয়ত মানুষ অনুতাপ ও ভগ্নান্তকরণে খোদার দিকে ফিরে আসতো৷

ইব্রাহীমের বংশধরদের কি আপনি দোষারোপ করেন? তারাও আপনাদের মতো পাপী৷

খোদা পরিষ্কার করে বলেছেন, 'পবিত্র হও, কেননা আমি পবিত্র' আসলে আপনি কি পবিত্র ও খাঁটি মসিহি, যেমন আপনার বেহেশতি পিতা খাঁটি? আপনার নূর অর্থাত্‍ সত্‍কাজের ফল লোকদের সামনে প্রতিভাত হচ্ছে, আপনার কাজকর্ম দেখে তারা কি খোদার প্রশংসা করছে, আপনার জীবনের আমুল পরিবর্তনের ছাপ কি লোকের কাছে বাহ্যতঃ দৃষ্ট হচ্ছে? আপনার বন্ধুমহল আপনার ধমর্ীয় বিশ্বাসকে কি ঘৃণা করছে, আপনি তাদের থেকে উত্তম নন, তারা মসিহের দেয়া নাজাতকে অস্বীকার করছে? খোদার বিরুদ্ধে দুর্নাম করার কারণ কি আপনি নিজেই হয়েছেন? আপনার প্রেম ও বিনম্রতার মাধ্যমে বেহেশতি পিতা কি নিজেকে প্রকাশ করতে পারেন?

প্রার্থনা: হে পবিত্র ও মহান খোদা, আমি যতটুকু জানি তার চেয়ে আমার পাপ অনেক বেশি৷ আমার অবাধ্যতা ও ভন্ডামির মধ্যে, খোদার নিন্দার কারণ হয়েছি বহুজনের কাছে৷ আমাকে ক্ষমা করুন, কেউ যখন তোমার নামের নিন্দা করে, তার কারণ আমি তোমার রক্তে স্নাত হওয়া সত্ত্বেও তোমার সম্মুখে সঠিকভাবে চলি নি বলে৷ আমার অপূর্ণ প্রেম, পবিত্রতার ঘাটতি ও অধর্য সমূহ ক্ষমা করো৷ তুমি তো তোমার সুরতে আমাকে সৃষ্টি করেছো, যেন সমাজের অন্য লোকজন আমার মধ্যে তোমাকে প্রত্যক্ষ করতে পারে, তাই আমাকে সাহায্য করো তোমার আজ্ঞা সমূহ পালন করে চলার জন্য, আর তোমার দৃষ্টান্ত যেন অনুসরণ করতে পারি যথা তোমার মহিমা উত্তরোত্তর আমার মধ্য দিয়ে বিকশিত হতে থাকে৷ আমার দুর্বলতা থেকে আমাকে রক্ষা করো৷ আমার ত্রুটি বিচু্যতি থেকে এবং আমাকে আমার হাত থেকে রক্ষা করো৷

প্রশ্ন:

২৩. শরীয়তের কি সুযোগ ও দায়িত্ব ছিল ইহুদিদের ওপর?

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on February 25, 2014, at 12:50 PM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)