Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- John - 105 (Jesus intercedes for the church's unity)
This page in: -- Arabic -- Armenian -- BENGALI -- Burmese -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- Hausa? -- Hindi -- Indonesian -- Kiswahili -- Kyrgyz -- Malayalam -- Peul -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish? -- Tamil -- Telugu -- Turkish -- Urdu -- Uyghur? -- Uzbek -- Vietnamese -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

যোহন - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলছে
যোহন বর্ণীত মসিহের নাজাতের বারতার সুসমাচার ওপর অধ্যয়ন
দ্খন্ড ৩ - সাহাবিদের প্রত্যেকের মধ্যে নূর জ্বলিতেছে (যোহন ১১:৫৫ - ১৭:২৬)
ই. ঈসার মধ্যস্থতা মূলক প্রার্থনা (যোহন ১৭:১-২৬)

৪. সাহাবিদের ঐক্যের জন্য ঈসা মসিহের মধ্যস্থতা (যোহন ১৭:২০-২৬)


যোহন ১৭:২৪
২৪. পিতা, আমি চাই, যাহাদের তুমি আমাকে দিয়াছ, আমার মহিমা দেখিবার জন্য আমি যেখানে আছি তাহারা যেন সেখানে আমার সঙ্গে থাকিতে পারে৷ সেই মহিমা তুমিই আমাকে দিয়াছ, কারণ জগত্‍ সৃষ্ট হইবার আগে হইতেই তুমি আমাকে মহব্বত করিয়াছ৷

ঈসা মসিহ তার প্রধান ঈমামের মত প্রার্থনার মধ্যে খোদাকে ছয় বার 'পিতা' বলে নামকরণ করেছেন এবং একবার সত্য খোদা বলেছেন৷ এই অদ্বিতীয় নামের মধ্য দিয়ে তিনি তার নিজের বিশ্বাসকে প্রকাশ করেছেন এবং খোদার জন্য আকাঙ্খা করেছেন৷ কারণ তিনি পিতার সাথে এক ছিলেন এবং নিজেকে নিঃস ও নত করেছেন আমাদের মুক্তির জন্য৷ প্রসিদ্ধ হতে তার কোন ইচ্ছা ছিল না অথবা তিনি কিছু পেতেও চাননি৷ তের বার তিনি এই অভিব্যাক্তি ব্যক্ত করেছেন 'তুমিই আমাকে দিয়াছ'৷ পুত্র মানবতাকে, তার অনুসারীদেরকে, তার কার্যাবলীকে খোদার দান হিসেবে মনে করেছেন যেন এগুলো তার নিজের কিছু না৷ এগুলোকে তিনি বর্জন করেছেন অথচ পিতার মহত্ত্ব ও সম্মানের কাছে সর্মপন করেছেন৷ এই নম্রতা অব্যাহত ঐক্যের আশ্বাস দেয় যাতে করে পুত্র পিতার চিন্তাধারা ও উদ্দেশ্যকে সম্পূর্ণভাবে সম্পাদন করতে পারেন৷

এই পরিপূর্ণ বশ্যতার কারনে তিনি প্রার্থনার মধ্যে বলতে পারতেন 'আমি কামনা করি'৷ সুতরাং খোদার পুত্রের এই কামনা বা চাওয়া কি প্রকাশ করে? এটা হলো তার অনুসারীরা সব জায়গায় এবং সব সময় তার সাথে থাকবে৷ তাই পৌল সাক্ষ্য দিয়েছিল যে সে ঈসা মসিহের সাথে সলিববিদ্ধ হয়েছিল এবং তার সাথে কবরে গিয়েছিল, পুনুরুত্থানে অংশ গ্রহনের জন্য এবং বেহেস্তে তার পাশে বসবে ঈসা মসিহের নম্রতার মধ্য দিয়ে খোদার অসীম প্রাচুর্যের রহমত খুঁজে পেতে (রোমীয় ৬:১-১১, ইফিষীয় ২:৪-৭)৷

ঈসা মসিহের সাথে আমাদের ঐক্য তার ভোগান্তি ও ভালোবাসার অংশীদারিত্ত্বকে ছাড়িয়ে যায়, এবং তার মহিমাকে অনর্্তভূক্ত করে৷ তিনি চান আমরা তার মহিমা দেখি এবং চিরকাল তার সাহচার্যের মধ্যে বাস করে৷ প্রেরিতগন আমাদের এই প্রত্যাশার লক্ষ্যক জানতেন৷ আমরা অবর্ণনীয় আনন্দ উপভোগ করবো যখন আমরা তাকে দেখবো৷ আমরা তার গৌরবকেও প্রতিফলিত করবো, তার সাদৃশ্যে রূপান্তরিত হব কারন সেই দ্বীপ্ত আমাদেরকে দেওয়া হয়েছে যা আমাদের হৃদয়ে খোদার ভালোবাসায় পূর্ণ করেছে (রোমীয় ৫:৫ এবং ৮:২৯)৷ প্রেরিতেরা তার উপস্থিতিতে উপলব্ধি করেছিল যে তার মহিমা তার এবং তার পিতার অনড় ভালোবাসা থেকে আসে যা পৃথিবী সৃষ্টির আগে থেকে ছিল৷ পবিত্র ত্রিত্বের মধ্যে এই অস্থিত্ত্ব হলো আমাদের সত্ত্বার উত্‍স৷

যোহন ১৭:২৫
২৫. ন্যায়বান পিতা, দুনিয়া তোমাকে জানে না, কিন্তু আমি তোমাকে জানি৷ আর তুমিই যে আমাকে পাঠাইয়াছ, ইহারা তাহা বুঝিতে পারিয়াছে৷

খোদা ন্যায়পরায়ন এবং সুবিচারে পূর্ণ থাকেন এমন কি যদি দুনিয়াও অবগত না থাকে৷ তার বৈশিষ্টের মধ্যে তিনি পবিত্র এবং তার মধ্যে কোন অস্পষ্টতা নেই৷ যে কেউ ঈসা মসিহের মধ্য দিয়ে তার ভালোবাসার অভিজ্ঞতা লাভ করেছে সে উপলব্ধি করে যে এটা তার ক্রটি নয় সে কারণে মানুষ পুত্রের উপর ঈমান আনে না অথবা মুক্তি খুঁজে পায় না৷

কিন্তু অনন্তকাল থেকে ঈসা মসিহ তার পিতাকে জানতেন কারণ পুত্র তার পিতাকে সামনা-সামনি দেখেছেন৷ তার গুনাবলী ও নাম পুত্রের জানা আছে৷ খোদাত্বের গভীরতর দৃষ্টিভঙ্গি তার কাছে লুকায়িত নেই৷

সবাই যারা পুত্রকে গ্রহন করে খোদা তাদেরকে তার সন্তান হবার অধিকার দেন৷ ঈসা মসিহ তাদের কাছে খোদার পিতৃত্ত্বের দৃঢ় রহস্যকে প্রকাশ করেছে৷ যারা নব জন্ম লাভ করেছে তারা উপলব্ধি করতে পারে যে ঈসা মসিহ খোদার কাছ থেকে এসেছেন৷ তিনি নিছক একজন ভাববাদী বা প্রেরিত নন কিন্তু তিনি স্বগর্ীয় এবং সত্য সত্যই খোদা থেকে এসেছেন৷ খোদাত্ত্বের সকল পূর্ণতা তার মধ্যে ছিল৷ মানুষ হিসেবে ঈসা মসিহের খোদাত্ত্বতকে উপলদ্ধি করতে পাকরূহ আমাদের আলোকিত করে তার সাথে এক হতে এবং পিতার সাথে যিনি তাকে পাঠিয়েছেন৷ তাই তিনি হলেন খোদা এবং মানুষের মধ্যে সংযুক্তি৷

যোহন ১৭:২৬
২৬. 'আমি তাহাদের নিকট তোমাকে প্রকাশ করিয়াছি এবং আরও প্রকাশ করিব, যেন তুমি আমাকে যেভাবে মহব্বত কর, সেই রকম মহব্বত তাহাদের অন্তরে থাকে, আর আমি যেন তাহাদের সঙ্গে যুক্ত থাকি৷'

সংক্ষেপে, ঈসা মসিহ পিতার নামের প্রকাশিত বাক্যকে আমাদের শিখিয়েছেন৷ এটার স্পষ্ট প্রদর্শন হলো সলিব যেখানে পিতা তার পুত্রকে পবিত্র কোরবানী হিসাবে উত্‍সর্গ করেছেন যা তিনি আমাদের জন্য পুত্রের অধিকারে অংশ নিতে বলেছেন৷ যখন পাকরূহ আমাদের উপরে নেমে আসে আমাদের হৃদয়ের অন্তস্থল থেকে চিত্‍কার করে বলি 'আব্বা, পিতা'৷ প্রভূর প্রার্থনা হলো সকল প্রার্থনার মুকুট যা পিতাকে তার রাজ্যকে এবং তার ইচ্ছাকে গৌরবান্বিত করে৷

আমরা এতটুকু উপলব্ধি করতে পারি যে আমাদের প্রভূ ঈসা মসিহের পিতা এবং সেই ভালোবাসাকে যা পিতা ও পুত্রের মধ্যে অব্যাহত আছে যা আমাদের মধ্যে ঢেলে দেওয়া হয়েছে৷ তিনি আমাদের মধ্যে ভালোবাসার পূর্ণতা সৃষ্টি করতে তার পিতার কাছে মিনতি করেছেন৷ কেবলমাত্র পিতা আমাদের কাছে আসেন না কিন্তু ঈসা ব্যক্তিগতভাবে আমাদের সঙ্গে থাকতে চান৷ তাই তিনি প্রার্থনা করেছেন যেন খোদায়ি সত্তায় পূর্ণতা আমাদের উপর নেমে আসে যা যোহন তার চিঠিতে স্বীকার করেছেনঃ খোদা হলেন মহব্বত এবং যে কেউ মহব্বতের মধ্যে থাকে সে খোদার সঙ্গে থাকেন এবং খোদা তার সঙ্গে থাকেন৷

প্রশ্ন:

১০৯. ঈসা মসিহের প্রধান ইমামের মত প্রার্থনার সারাংশ কি?

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on July 25, 2012, at 09:14 AM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)