Waters of Life

Biblical Studies in Multiple Languages

Search in "Bengali":
Home -- Bengali -- John - 067 (Jesus is the Good Shepherd)
This page in: -- Arabic -- Armenian -- BENGALI -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- Hausa? -- Hindi -- Indonesian -- Kiswahili -- Kyrgyz -- Malayalam -- Peul -- Portuguese -- Russian -- Serbian -- Spanish? -- Tamil -- Telugu -- Turkish -- Urdu -- Uyghur? -- Uzbek -- Vietnamese -- Yiddish

Previous Lesson -- Next Lesson

যোহন - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলছে
যোহন বর্ণীত মসিহের নাজাতের বারতার সুসমাচার ওপর অধ্যয়ন
দ্বিতীয় খণ্ড - নূর অন্ধকারের মধ্যে জ্বলিতেছে (যোহন ৫:১ - ১১:৫৪)
সি - জেরুজালেমে ঈসা মসিহের শেষ যাত্রা (যোহন ৭:১ - ১১:৫৪) -- অন্ধকার ও নূরের পৃথককরণ
৩. ঈসা মসিহ একজন ভালো রাখাল (যোহন ১০:১-৩৯)

গ) ঈসা মসিহই ভালো রাখাল (যোহন ১০:১১-২১)


যোহন ১০:১১-১৩
১১. 'আমিই ভালো রাখাল৷ ভালো রাখাল তাহার ভেড়ার জন্য নিজের প্রাণ দেয়৷ ১২, ১৩. কেবল বেতনের জন্য ভেড়াগুলিও তাহার নিজের নয়৷ নেকড়ে বাঘ আসিতে দেখিলেই সে ভেড়াগুলি ফেলিয়া পলাইয়া যায়, কারণ সে কেবল বেতন পাইবার জন্য এই কাজ করে আর ভেড়াগুলির জন্য চিন্তা ও করে না৷ নেকড়ে বাঘ তাহাদের ধরিয়া লইয়া যায় আর ভেড়াগুলি চারিদিকে ছড়াইয়া পড়ে৷

খোদা রাজাদের ভন্ড নবী ও ঈমামদের যারা প্রতারণা করেছিল তাদেরকে ধৈর্য্যের সাথে সহ্য করেছিলেন এবং মেষদের মতো তার ছড়িয়ে পড়া লোকদের যারা রাখালহীন ছিল তাদের দিকে দৃষ্টি দিলেন৷ তাই তিনি ভালো রাখাল হিসেবে মসীহকে আমাদের কাছে পাঠালেন৷ তিনি আসার পর বললেন, 'আমি সেই সত্য রাজা, প্রধান ঈমাম এবং নবী যে চুড়ান্ত প্রকাশিত কালাম নিয়ে উপস্থিত৷' ব্যক্তি ঈসা মসিহের মধ্যে আমরা রাখালের সকল কার্যাবলি একত্রে খুঁজে পাই৷ তিনি সত্যিই বলতে পারেন, 'পরিশ্রান্ত ভারাক্রান্ত লোক সকল আমার কাছে আস আমি তোমাদের বিশ্রাম দিব৷' আমি তোমাদের শোষণ করবো না, কিন্তু তোমাদেরকে বিপথে চালিত জীবন থেকে এবং সব রকম বিপদ থেকে উদ্ধার করবো৷

তিনি যে একমাত্র ভালো রাখাল তার প্রমান হলো প্রথম থেকেই তার মেষদের নিজের জীবন উত্‍সর্গ করার ইচ্ছা৷ তিনি শুধু একথা বলেন নি যে, তিনি শুধু তার দেহকে উত্‍সর্গ করবেন কিন্তু তার দেহ, আত্মা এবং রূহকে খোদার মেষপালদের মুক্তির জন্য উত্‍সর্গ করেছেন৷ প্রথম থেকেই তিনি তার অনুসারীদের সেবা করতে পরিশ্রম করেছেন৷ তার দেহগত মৃতু্য আত্ম উত্‍সর্গের মুকুটতুল্য৷ স্মরণ রাখবেন যে ঈসা মসিহ কেবল নিজের জন্য বেঁচে ছিলেন না অথবা মারা যাননি৷ তিনি আপনার জন্য বেঁচে ছিরেন এবং মারা গিয়েছিলেন৷

অবিশ্বাসী রাখালদের খুঁজে বের করা যায়, কারণ বিপদের সময় তারা পালিয়ে যায় এবং নিজেদেরকে লুকিয়ে রাখে, কেবলমাত্র তারা নিজেদের দিকে খেয়াল করে৷ তারা মেষদেরকে নেকড়ের কাছে ছেড়ে দেয়, যারা সামনে এসে পড়ে তারা পশু না কিন্তু পশুর বেশে আসে; তাদের পিতা হলো শয়তান৷ আদি নেকড়ের মতো শয়তানের উদ্দেশ্য হলো গোগ্রাসে গিলে খাওয়া৷ তার আক্রমণ হলো পঙ্কিল যন্ত্রনাদায়ক এবং হত্যাযগ্যের মতো৷ সে মনোরম প্রলোভন এবং পরিস্কার মিথ্যা কথা দিয়ে ষড়যন্ত্র পাকায়৷ আমরা পালকেরা অবশ্যই ভূল শিক্ষাকে সহ্য অথবা তুচ্ছ করবো না ভালোবাসাকে ছুতা হিসেবে ব্যবহার করে৷ কিন্তু ভালোবাসার জন্য আমরা অবশ্যই সত্যকে বিজ্ঞের মতো এবং সরলভাবে রক্ষা করবো, প্রয়োজনবোধে৷ ঈসা মসিহের জীবন আমাদের বলে যে তিনি সব সময় শয়তানের রূহের সাথে বিরোধীতার মধ্যে ছিলেন৷ ভালোবাসার সাথে তিনি পূর্ণ সত্যের কথা তার সেবকদের বলতেন, যাতে করে তারা মেষপালকে শয়তানের রুহের আক্রমন থেকে রক্ষা করতে পারে৷ ক্ষুধার্ত নেকড়ের উদ্দেশ্য স্পষ্ট, কারণ মিথ্যা অভিযোগ এবং নিদারুন যন্ত্রণা দিয়ে খোদার মন্ডলীকে ধ্বংস করতে চায়৷ আপনি কি সেবা এবং সম্মান খুঁজছেন খোদার মেষপালদের মধ্যে? মনে রাখবেন যে এটার অর্থ সংঘর্ষ, যন্ত্রণা এবং কোরবান এবং এটা কোন সাফল্য বা সন্তুষ্টি আনে না৷

যোহন ১০:১৪-১৫
১৪, ১৫. 'আমিই ভালো রাখাল৷ পিতা যেমন আমাকে জানেন এবং আমি পিতাকে জানি, তেমনই আমিও আমার ভেড়াগুলিকে জানি এবং তাহারাও আমাকে জানে৷'

ঈসা মসিহ এই দাবির পুনরাবৃত্তি করলেন যে, তিনি ছিলেন অদ্বিতীয় রাখাল৷ আমরা সবাই ব্যর্থ এবং প্রচারে অসমর্থ যেহেতু আমরা পুরোপুরি আমাদের শত্রুদের চিনি না এবং সম্পূর্ণভাবে মেষদের মানসিকতা বুঝি না, অথবা কিভাবে তাদেরকে সব থেকে ভালো চারণ-ভূমিতে চালনা করতে হয়৷ ঈসা মসিহ প্রতিটি ব্যক্তিকে তার নামে চেনে এবং তার অতীতকে তার চিন্তাধারাকে এবং তার ভবিষতকে দেখতে পায়৷

ঈসা মসিহ তার নিজের মেষদেরকে নিজেই বাছিয়া নেন এবং তাদেরকে তাকে মৌলিকভাবে চিনতে বিশেষ গুণ প্রদান করেন৷ যখন তারা তাকে ভালোবাবে চিনতে পারে, তারা অবাক হয়ে যায় এইবেবে যে কেন তিনি তাদেরকে কখনো প্রত্যাখ্যান করেননি৷ তার উপস্থিতি তাদের ব্যর্থতাগুলিকে প্রকাশ করে৷ এই সাক্ষাত বা উপস্থিতি মহত্‍ ভালোবাসার সৃষ্টি করে যা তাদেরকে কৃতজ্ঞতা এবং শাশ্বত চুক্তিনামা বা দাসত্বের দিকে চালিত করে৷

ঈসা মসিহ এবং তার মেষপালদের মধ্যে পারস্পপারিক সমঝোতা ভাসা ভাসা অথবা পার্থিব নয়, কিন্তু এটি একটি রুহের দান, কারণ আমরা তাকে উপলব্ধি করতে পারি যে তিনি পিতাকে দেখেন, যেমন পিতা তার পুত্রকে চেনে৷ এটি একটি রহস্য যা প্রতিটি ঈসা মসিহের উম্মত ঈসা মসিহের মধ্য দিয়ে প্রকাশিত বাক্যের সত্যকে বেহেশতি জ্ঞানের মাধ্যমে পেয়ে থাকে পাক রুহের স্পর্শে এটা আরও বোঝায় যে খোদার রুহ তার মেষপালের মধ্যে বাস করে এবং তাদেরকে পরিপূর্ণ করে৷ কেউ-ই প্রত্যাখিত হয় না৷

যোহন ১০:১৬
১৬. আমি আমার ভেড়াগুলির জন্য প্রাণ দিব৷ আরও ভেড়া আমার আছে যে এই খোঁয়াড়ের নয়৷ তাহাদেরও আমাকে আনিতে হইবে৷ তাহারা আমার ডাক শুনিবে, আর তাহাতে একটি ভেড়ার পাল ও একজন রাখাল হইবে৷

ঈসা মসিহ কোন একটি নিদৃষ্ট জাতি গোষ্টির জন্য মৃতু্যবরণ করেন নাই কিন্তু সবার জন্যই করেছেন৷ তিনি কেবলমাত্র তৌরাতের অবাধ্য লোকদেরকে নাজাত করেন নাই কিন্তু অন্য জাতিগোষ্ঠির কলুষিত লোকদেরকেও নাজাত দিয়েছেন৷ তিনি ভবিষতবাণী করেছিলেন যে তার মৃতু্যর মধ্যে দিয়ে দুনিয়াব্যাপী অনেক সংখ্যক মেষ মুক্তি পাবে৷ কেউ-ই নিজের ইচ্ছায় খোদার কাছে আসতে পারে না; তাদের একটি পথ প্রদর্শক ও ভালো রাখালের প্রয়োজন এটাই ছিলেন ঈসা মসিহ তিনি ব্যক্তিগতভাবে জাতিগোষ্টি এবং স্বাতন্ত্র ব্যক্তিবর্গের রাজা ছিলেন৷ তার বাক্য দ্বারা তিনি আধ্যাত্মিক পথপ্রদর্শন করতেন৷ যেমন মেষেরা তাদের নিজের রাখালের কন্ঠস্বর চিনতে পারে, তেমনিই সর্বত্র লোকেরা ঈসা মসিহের কন্ঠস্বর শুনতে প্রস্তুত থাকে এবং শিঘ্রই তারা পরিবতর্ীত হয়৷ ঈসা মসিহের নেতৃত্বে তৌরাতের মনোনীত ব্যক্তিরা এবং অন্য জাতিগোষ্টির ধর্মান্তরিত ব্যক্তিরা একটি নতুন আধ্যাত্মিক একাত্বতায় উত্থিত হয়৷ ইঞ্জিলের লোকেরা আজকের দিনে খোদার মেষপাল এবং ঈসা মসিহ হলো আমাদের রাখাল৷ সবাই যারা আনন্দের সাথে সুসমাচার শোনে এবং ঈসা মসিহের ওপর ঈমান আনে, যিনি খোদার পুত্র, তারা আসল মণ্ডলীভূক্ত এমন কি যদিও তারা বিভিন্ন মন্ডলীতে যোগ দেয় আমাদের কাছে একটাই রুহ, একটাই প্রভূ এবং একজন পিতাই আছেন৷ ঈসা মসিহের রক্তের মধ্য দিয়ে পরিষ্কৃত সবার কাছেই এই রুহ আসে৷ ঈসা মসিহের মেষপালদের একাত্বতা আমাদের কল্পনা থেকেও বৃহত্‍, যে মেষেরা সব জায়গা থেকে জড় হয়েছে৷ ভালো রাখাল ব্যক্তিগতভাবে আসে তার বিশ্বস্ত এবং সাধারণ অনুসারীদেরকে গৌরবের দিকে চালিত করতে৷ তখন একটাই মেষপাল এবং একটাই রাখাল থাকে৷ কিন্তু যে কেউ আজকাল মানিবকভাবে এবং পার্থিব উদ্দেশ্যে একটি মণ্ডলী তৈরি করতে চেষ্টা করে তারা বড় নেকড়ের ফাঁদের মধ্যে পড়ে, যে মেষপালদের মনোযোগকে তাদের রাখালদের থেকে নিজের দিকে টানে৷ যাই হোক আমরা একে অপরের কাছে আসতে পারি না যদি না আমরা ঈসা মসিহের আরও কাছে আসতে পারি৷

যোহন ১০:১৭-১৮
১৭. পিতা আমাকে এইজন্য মহব্বত করেন, কারণ আমি আমার প্রাণ দিব, যেন তাহা আবার ফিরাইয়া লইতে পারি৷ ১৮. কেহই আমার প্রাণ আমার নিকট হইতে লইয়া যাইবে না৷ কিন্তু আমি নিজেই তাহা দিব৷ প্রাণ দিবারও ক্ষমতা আমার আছে৷ এই ক্ষমতা ফিরায়িা লইবারও ক্ষমতা আমার আছে৷ এই ক্ষমতা আমি আমার পিতার নিকট হইতে পাইয়াছি৷'

আমরা বিশ্বাস করি খোদা হলো প্রেম, যিনি তার পুত্রকে সব সময় ভালোবাসেন৷ কারণ ঈসা মসিহ তার পিতা যাতে সন্তুষ্ট হয় অবিরতভাবে তাই করতেন৷ আমরা এখন জানি খোদা সত্য সত্যই কিসে সন্তুষ্ট হন; এটা হলো একমাত্র ক্রুশ৷ খোদার উদ্দেশ্য ছিল ঈসা মসিহের মৃতু্য যা তিনি নির্ধারণ করেছিলেন৷ পাপের থেকে মেষপালকে রক্ষা করবার আর কোন উপায় ছিল না, কিন্তু মেষশাবকের রক্তের মধ্যে দিয়ে প্রায়শ্চিত্ত এবং পাপ মুক্ত করেছিলেন৷

ঈসা মসিহের মৃতু্য এবং পুনুরুত্থান হলো প্রধান মোজেজা; তিনি আমাদেরকে বলেছিলেন বাঁচবার উদ্দেশ্যেই তিনি মৃতু্যবরণ করবেন৷ তিনি বাধ্য হয়ে নিজেকে সমর্পণ করেননি কিন্তু স্বতষ্ফুর্তভাবে তা করেছিলেন, কারণ তিনি পাপীদেরকে পুনরুদ্ধার করতে চেয়েছিলেন৷ তিনি হলেন খাঁটি ভালোবাসা তার পিতা দুনিয়াকে রক্ষা করবার জন্য তার কর্তৃত্বকে তার কাছে হস্তান্ত করেছিলেন এবং জীবন ফিরে পাবার কর্তৃত্বও দিয়েছিলেন৷ ক্রুশের ওপর মসিহের জয় সম্পন্ন করতে কেউ বাঁধা দিতে সমর্থ হয়নি৷ শয়তান এবং তার অনুসারীরা তার পুনরুদ্ধারের কাজকে ব্যহত করতে চেষ্টা করেছিল; কিন্তু এই বিদ্বেশপূর্ণ কাজ ঈসা মসিহের শক্তিমান ভালোবাসার কাছে পরাভূত হয়েছিল৷ এটা কাইফা, পিলাত যা অন্য কেউ ছিল না যে তাকে মরতে অনুপ্রানিত করেছিল; এটা নিজেই যে মৃতু্যবরণ করতে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন৷ তার কাছে নেকড়েকে আসতে দেখে তিনি পালিয়ে যাননি, কিন্তু আমাদের রক্ষা করতে নিজেকে সমর্পণ করেছিলেন৷ এটা ছিল খোদার যথাযথ ইচ্ছা৷ ক্রুশের ওপর ঈসা মসিহ বেহেশত ও দোজখের মধ্যের সংঘাতকে জয় করেছিলেন৷ সেই দিন থেকে তার মেষপালের মেষশাবকের রক্তের মধ্য দিয়ে প্রতিশ্রুতি পেয়েছিলেন৷ ঈসা মসিহ আমাদেরকে সংকট ও দূর্দশার মধ্য দিয়ে তার মহিমার দিকে চালিত করেন৷

যোহন ১০:১৯-২১
১৯. ঈসা মসিহের কথার জন্য ইহুদিদের মধ্যে আবার মতে অমিল দেখা দিল৷ ২০. তাহাদের মধ্যে অনেকে বলিল, 'তাহাকে ভূতে পাইয়াছে, সে পাগল; তোমরা তাহার কথা কেন শুনিতেছ?' ২১. অন্যেরা বলিল, 'কিন্তু ইহা তো ভূতে পাওয়া লোকের মতো কথা নয়৷ ভূত কি অন্ধের চোখ খুলিয়া দিতে পারে?'

ওই সকল গুপ্তচরেরা যাদেরকে ইহুদি নেতারা পাঠিয়েছিল তারা ইহুদি কর্তৃপক্ষকে ঈসা মসিহ ডাকাত এবং শয়তানের চেলা হিসেবে বর্ণনা করাতে এবং নিজেকে খোদার ভালো রাখাল হিসেবে দাবি করাতে বিশেষ করে সকল জাতির রাখাল বলাতে প্রচ- ক্রোধোন্বত হয়েছিল যে ব্যাপারটি ইহুদিরা শয়তানের কাজ বলে আখ্যায়িত করে৷ তারা নিজেদেরকে খোদার মনোনীত লোক হিসেবে বিবেচনা করতো৷ তারা তাকে ভূতগ্রস্ত এবং পাগল হিসেবে আখ্যায়িত করলো এবং প্রচণ্ডভাবে বিরক্ত হলো৷ সেখানে দাঁড়িয়ে থাকা বেশিরভাগ লোকেরাই এই অভিযোগের সাথে একমতো হলো৷ জনসাধারণ ঈসা মসিহের বিরুদ্ধে ঘুরে যাচ্ছিল, যেহেতু তার বেহেশতি শিক্ষা তাদের উপলব্ধির বাইরে ছিল৷

তবুও তার কিছু শ্রোতাদের একথা প্রকাশ্রে সাক্ষ্য দেবার সাহস ছিল যে তারা ঈস মসিহের বাক্যের মধ্য দিয়ে খোদার কন্ঠস্বর শুনছে৷ তার বাক্যগুলি অসাড় চিন্তাধারার ছিল না কিন্তু ক্ষমতা এবং সৃজনশীলতায় পূর্ণ ছিলেন৷ তিনি অন্ধ লোকটির পাপ সমূহ ক্ষমা করেছিলেন৷ লোকদের মধ্যে ঈসা মসিহের বিরুদ্ধে শত্রুতা বেড়ে উঠছিল, যখন তার ভালোবাসা কিছু খাঁটি মেষপালদের মধ্যে শিকড় গেড়েছিল৷ ঈসা মসিহ সব সময়ই তার মেষপালকে পাক-রুহের মধ্য দিয়ে শান্তভাবে নিশ্চিত গন্তব্যে পেঁৗছাতে চালিত করেন৷

প্রার্থনা: প্রভু ঈসা মসিহ, মেষেদের রাখাল, তুমি অবাধ্য মেষদেরকে প্রত্যাখ্যান করনি কিন্তু তাদের খুঁজেছ যতক্ষন না পর্যন্ত তাদেরকে পেয়েছ এবং তাদের জন্য নিজের জীবনকে পর্যন্ত পরিত্যাগ করেছ৷ আমাদের পাপ সকল ক্ষমা কর৷ আমাদেরকে পাক-রুহের জ্ঞান প্রদান করার জন্য তোমাকে ধন্যবাদ দেই, যাতে করে আমরা তোমাকে চিনতে পারি, যেমন তুমি পিতাকে চেন৷ তুমি আমাদের নাম জান এবং এখনো আমাদেরকে ভূলে যাও না৷ তোমার সকল অনসারীদের সাথে আমাদেরকেও তুমি পরিচর্যা কর৷ বিভিন্ন জাতি গোষ্ঠির থেকে তাদেরকে তুমি বেছে নাও যারা তোমার কথা শোনে এবং তাদেরকে একাত্রিত কর৷ ক্ষুধার্ত নেকড়ে থেকে তাদেরকে তুমি রক্ষা কর৷

প্রশ্ন:

৭১. কেমন করে ঈসা মসিহ ভালো রাখাল হলেন?

www.Waters-of-Life.net

Page last modified on June 14, 2012, at 10:43 AM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)